সোমবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২০

চেতলায় চালু ‘মেয়রস হেলথ ক্লিনিক’, উদ্বোধন করলেন ফিরহাদ হাকিম



আসিফ রেজা আনসারী

শহর কলকাতার সব ওয়ার্ডেই চালু আছে ‘আরবান প্রাইমারি হেলথ্ সেন্টার’। সাধারণ জ্বর, ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গুর পাশাপাশি সব ধরণের প্রাথমিক চিকিৎসা পেয়ে থাকেন পুর-বাসিন্দারা। বড় কিছু হলে সরকারি হাসপাতালে রেফার করা হয়। এবার আরও এক ধাপ এগোল কলকাতা পুরনিগম। রবিবার ২৯/৫ চেতলা সেন্ট্রাল রোডে চালু হল ‘মেয়রস্ হেলথ্ ক্লিনিক’। কলকাতা পুরনিগম ও রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের ব্যবস্থাপনায় ৯ নম্বর বোরো, ৮২ নম্বর ওয়ার্ডে ওই ক্লিনিক উদ্বোধন করেন পুরমন্ত্রী ও কলকাতার পুব-প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম, প্রখ্যাত চিকিৎসক গৌতম খাস্তগীর, ডা. শান্তনু সেন, সাংসদ মালা রায় সহ বিশিষ্টজনেরা। 


মেয়রস্ হেলথ্ ক্লিনিক সম্পর্কে ফিরহাদ হাকিম বলেন, কলকাতার সব ওয়ার্ডেই প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র রয়েছে। এখানেও ছিল। তা নতুন করে তৈরি করা হয়েছে। আরও বেশি করে মানুষকে স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া হবে। ডায়ালিসিস্-এর প্রয়োজন হলেও তা করা হবে। ফিরহাদ হাকিম আরও বলেন,মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাদের হেল্প করেছেন, মানুষকে ১০০ শতাংশ বিনামূল্যেই চিকিৎসা, পরীক্ষা-সহ সব পরিষেবা প্রদান করা হবে। মেয়রস্ ক্লিনিকে থাকবে অ্যাম্বুলেন্স। কারও বড় কিছু হলে সেখান থেকে সরকারি হাসপাতালে পাঠানোর বন্দোবস্ত করা হবে। রাজ্যের সব সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যেই স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে, কেউ যদি বেসরকারি হাসপাতালে যেতে চান, তবে তাঁরা স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের মাধ্যমে সেখানে সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত বিমার সুযোগ পাবেন বলে জানান ফিরহাদ হাকিম। স্বাস্থ্যসাথীর কাজ ঠিকভাবে হচ্ছে কিনা, তা দেখার জন্য মনিটরিং সেল গঠনের কথাও উল্লেখ করেন পুর-প্রশাসক। 


অন্যদিকে পুরনিগমের মুখ্য-স্বাস্থ্য আধিকারিক জানান, করোনা, যক্ষা ইত্যাদি আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে দ্রুততার সঙ্গে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। আগামীতে ইনডোর পরিষেবা দিতেও তাঁরা প্রস্তুত। বিদায়ী মেয়র ও বর্তমান প্রশাসক ফিরহাদ হাকিমের ঐকান্তিক প্রচেষ্টাতেই এই ক্লিনিক চালু করা হল বলে উল্লেখ করেন তিনি। দেশের অন্যত্র এমন উদ্যোগ দেখা যায়নি বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only