শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০

সংখ্যালঘুদের সার্বিক উন্নয়নে ম‍ুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি মিল্লি কাউন্সিলের

 


পুবের কলম প্রতিবেদকঃ রাজ্যের সংখ্যালঘুদের সার্বিক উন্নয়নে ম‍ুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিল অল ইন্ডিয়া মিল্লি কাউন্সিল। উর্দু মিডিয়াম স্কুলগুলিতে এসসি, এসটি শিক্ষকদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এটা আশাযোগ্য নয়। কাউন্সিলের মতে, সমস্ত উর্দু মিডিয়াম স্কুলকে মাইনোরিটি স্ট্যাটাস দেওয়া যেতে পারে। কাউন্সিলের নেতৃত্বদের বক্তব্য, মিল্লি আল আমীন কলেজের মাইনোরিটি স্ট্যাটাস আটকে রয়েছে, মাইনোরিটি স্ট্যাটাস অনুসারে যাতে মিল্লি আল আমীন কলেজ চলতে পারে, তার উদ্যোগ নিতে হবে। সরকারি ও বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে সংখ্যালঘু পড়‍ুয়াদের ছাড়পত্রের সুযোগ দিতে হবে। স্কুল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রভর্তি ও  বিভিন্ন ক্ষেত্রে চাকরিতে পুরোপুরিভাবে ওবিসি-এ এবং ওবিসি-বি সংরক্ষণ দিতে হবে। সমস্ত সার্ভিস কমিশন ও নিয়োগ বোর্ডে মাইনোরিটি কমিউনিটির প্রতিনিধি রাখতে হবে।


ডিএম, এসপি, পুলিশ কমিশনারের কিছু পদে মাইনোরিটি কমিউনিটি রাূতে হবে। আর্সেনিক প্রবণ জেলা মালদা, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, উত্তর ২৪ পরগণায় পানীয় জল সরবরাহের ব্যবস্থা আরও বাড়াতে হবে। হজ হাউস এবং আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিনামূল্যে পিএসসি, পুলিশ এবং অন্যান্য সরকারি চাকরির জন্য কোচিংয়ের ব্যবস্থা চালু রাখতে হবে। ইতিমধ্যে হজ হাউসের উদ্যোগে ডব্ল‍ুবিসিএস কোচিং শুরু হলেও, আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এখনও শুরু করেনি।  


হাউজিং স্কীমে সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা রাখতে হবে। যাতে সংখ্যালঘুরাও সুযোগ সুবিধা পায়। জেলাগুলি থেকে বিভিন্ন কাজে আসা ইমাম, সংখ্যালঘু মানুষদের জন্য থাকার বন্দোবস্তো করতে হবে। এর জন্য কলকাতায় ওয়াকফ বাের্ডের জায়গায় বিল্ডিং তৈরি করতে হবে। তবে ইতিমধ্যে হজ হাউসের উদ্যোগে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। অল ইন্ডিয়া কাউন্সিলের রাজ্য সভাপতি ক্কারী ফজলুর রহমান, সহ-সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ শফিক কাশেমী, সাধারণ সম্পাদক সাহুদ আলমের স্বাক্ষরিত চিঠি মুখ্যমন্ত্রী পাঠানো হয়েছে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only