মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০

জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই সমস্ত মাদ্রাসায় নতুন বই পৌঁছবে



আবদুল ওদুদ

কোভিড-১৯’এর কারণে রাজ্যের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। এর মধ্যে ভার্চুয়ালভাবে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ব্যবস্থা করেছে মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদ। বছর শেষে নতুন ক্লাসে ওঠার তোড়জোড় শুরু হয়েছে। পিছিয়ে নেই রাজ্যের ৬১৪টি মাদ্রাসা। তার সঙ্গে এমএসকে এসএসকে এবং আন-এডেড মাদ্রাসাগুলিও পড়াশোনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 


নতুন শিক্ষাবর্ষে নতুন বই নিয়ে যাতে ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা করতে পারে,তার উদ্যোগ নিল মাদ্রাসা শিক্ষা অধিকর্তা। আগামী জানুয়ারি মাসে প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই সমস্ত ছাত্রছাত্রীর হাতে যাতে বই পৌঁছে যায় সেই উদ্যোগ নিলেন আবিদ হোসেন। সোমবার তিনি বলেন, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই আমরা প্রত্যেক স্কুলে বই পৌঁছে দেব। এর পর প্রধানশিক্ষকরা মিড-ডে মিলের সঙ্গে নতুন বইও ছাত্রছাত্রীদের হাতে তুলে দেবেন। তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে কোনও ছাত্রছাত্রী নয় অবিভাবকদের হাতে বই তুলে দেওয়া হবে বলে তিনি জানান। জানুয়ারি মাসে মিড-ডে মিলের খাওয়ার বিতরণ করা হবে। নতুন বই সেই সময়তেই ছাত্রছাত্রীরা পেয়ে যাবেন। তিনি বলেন, ইতিমধ্যেই প্রত্যেক স্কুল থেকে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা কত সেই সম্পর্কিত তথ্য পাঠানো হয়েছে। সেই তথ্যের ভিত্তিতে প্রত্যেক স্কুলে বই পৌঁছে দেবে ডিএমই। 


মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি ড. আবু তাহের কমরুদ্দিন বলেন, প্রতি বছরই নতুন বছরের শুরুতেই ছাত্রছাত্রীদের হাতে বই তুলে দেওয়া হয়। এ বছরও সে রকমই পরিকল্পনা নিয়েছে ডিএমই। পর্ষদ প্রত্যেক স্কুলের ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা সম্পর্কিত তথ্য পাঠিয়ে দিয়েছে। আশা করা হচ্ছে অন্যান্য বছরের মতো এ বছরও নির্দিষ্ট সময়েই বইপত্র হাতে পেয়ে যাবে ছাত্রছাত্রীরা। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে পড়াশোনা সঠিকভাবে চালিয়ে যেতে পর্ষদ ও ডিএমই যথায়ত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলে তিনি জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only