সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

বিশ্ব ভারতীকে দেওয়া রাস্তাটি ফিরিয়ে নিল রাজ্য সরকার

  




দেবশ্রী মজুমদার, বোলপুর, ২৮ ডিসেম্বর: বিশ্ব ভারতীকে দেওয়া রাস্তাটি ফিরিয়ে নিল রাজ্য সরকার। বিশ্ব ভারতীর উপাসনা মন্দিরের পাশ দিয়ে শিক্ষা ভবনের মুখ থেকে ক্লাব মোড় পর্যন্ত রাস্তা যেটা এতদিন বিশ্ব ভারতীকে ২০১৭ সালে দেওয়া হয়েছিল, সেই রাস্তা ফিরিয়ে নেওয়া প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 

শুধু অমর্ত্য সেনের মত স্বনামধন্য লোক নন। অনেক লোক রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন করেছেন, তাঁদের যাতায়াত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আশ্রমিকদের হাঁটতে দেওয়া হচ্ছে না। তাঁদের প্রয়োজনীয় কোন কনস্ট্রাকশন করতে দেওয়া হচ্ছে না। আজকেই আমি ফাইল ক্লিয়ার করে দিয়েছি। আমি বলেছি, হামারা রাস্তা থা। হামকো বাপস দে দো। আজকে কোন বিতর্কে যেতে চাই না। বিশ্ব ভারতীর প্রাক্তন উপাচার্য স্বপন দত্ত আছেন। যিনি ভালো বলতে পারবেন। এব্যাপারে প্রাক্তন ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সবুজ কলি সেন বলেন, তদানীন্তন উপাচার্য স্বপন কুমার দত্তের আমলে এই রাস্তা নেওয়া হয়। এটা ছিল পাবলিক রাস্তা। এটা ভালো হয়েছে। কারণ এই রাস্তা মেনটেনান্সের জন্য অতিরিক্ত খরচ বহন করতে হতো বিশ্ব ভারতীকে। 

মুখ্য মন্ত্রী এদিন বার বার রবীন্দ্রনাথের সংস্কৃতি চেতনা নিয়ে তাঁর যুক্তি তুলে ধরতে বলেন, আমি কোনদিন ভাবি নি, শান্তি নিকেতনে পৌষ মেলা, বসন্ত উৎসব বন্ধ করে দেওয়া হবে। এরপর প্রকৃত হিন্দু ধর্ম নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 

  স্বামী বিবেকানন্দ হিন্দু শিকাগোর মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছে সারা পৃথিবীতে।

 নেতাজী সে যে দেশ ছাড়লেন, আর দেশে ফিরলেন না। নেতাজীর মৃত্যু দিন জানবার জন্য সবাই চাই। মহাত্মা গান্ধী, আম্বেদকর, রাজেন্দ্র প্রসাদ থেকে শুরু করে রবীন্দ্রনাথ বিশ্ব ভারতী, নোবেল পুরস্কার ও তাঁর দেশপ্রেম সব কিছু পৌঁছে দিয়ে ছিল বিশ্বের দ্বারে। এদিন বহিরাগত তত্ত্ব নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, দেখুন আমরা দেশের সব জায়গায় যেতে পারি। কিন্তু সেই জায়গার সংস্কৃতি জানতে হবে। সেটা ভুলিয়ে দিতে চাইছে তারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only