শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০

কৃষক আন্দোলনের নেপথ্যে চিন ও পাকিস্তান,দাবি হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী জে পি দালালের



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ চলমান কৃষক আন্দোলন প্রসঙ্গে হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ দালাল বলেছেন, এই আন্দোলনের পিছনে বিদেশি শক্তি চিন ও পাকিস্তানের হাত রয়েছে। তারা দেশে অস্থিতিশীলতা চায়। এ ছাড়া ওই ইস্যুতে বিজেপি সাংসদ মনোজ তিওয়ারির দাবি ‘টুকরে টুকরে গ্যাং’য়ের লোকেরা কৃষক আন্দোলনকে একটি ‘শাহিনবাগ’ করতে চাচ্ছে।   

হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা জেপি দালাল বলেন, ‘চিন ও পাকিস্তানের মতো শত্রুদেশ কৃষকদের এগিয়ে দিয়ে দেশে অস্থিতিশীলতা আনতে চাচ্ছে। মোদি কোনও চাপিয়ে দেওয়া নেতা নন। তিনি এখনও জনগণের সমর্থন পাচ্ছেন। এমনকী এই আইন কার্যকর হওয়ার পরেও লোকেরা প্রচুর সমর্থন দিয়েছে। তারা কি কৃষক নয়? কৃষকরা যদি সড়কে আসে, তাহলে এর সিদ্ধান্ত সড়কে অথবা বা সংসদে নেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, সড়কের রাজনীতি ভালো নয়। দেশ অগ্রগতির পথে রয়েছে। কিছু বিদেশি শক্তি দেশের উন্নয়ন পছন্দ করে না। মোদির মুখ তাঁদের পছন্দ নয়। কৃষকদের মহড়া বানিয়ে বিরোধিতা করছে। মোদিজি কৃষকদের স্বার্থে কাজ করেন। কৃষকরা কথা বলুন। দিল্লির সড়ক বন্ধ করে দেওয়া বা ঘেরাও করা ভালো জিনিস নয়। এটি লাহোর বা করাচি নয় বলেও কৃষিমন্ত্রী জে পি দালাল মন্তব্য করেন।     

অন্যদিকে, বিজেপি সাংসদ মনোজ তিওয়ারি কৃষক আন্দোলন প্রসঙ্গে বলেন, ‘টুকরে টুকরে গ্যাং’য়ের লোকজন রাজধানীর সীমান্তকে ‘শাহিনবাগ’ করতে চায়। প্রসঙ্গত, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ‘সিএএ’র বিরোধিতা ও ওই আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দিল্লির শাহিনবাগে কয়েক মাস ধরে ধরনা, অবস্থান বিক্ষোভ হয়েছিল।        

বিজেপি নেতা মনোজ তিওয়ারির দাবি, খালিস্তানের সমর্থনে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে এবং মোদিজিকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এটি দেশের পরিবেশকে নষ্ট করার পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। শাহিনবাগে ‘এনআরসি’ এবং ‘সিএএ’ বিরোধিতাকারী ‘টুকরে টুকরে গ্যাংয়ের লোকেরাও দ্বিতীয় শাহিনবাগ তৈরির চেষ্টায় রয়েছে। তারা দেশে শান্তি চায় না বলেও মন্তব্য করেন মনোজ তিওয়ারি। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only