বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০

খদ্দের সেজে দোকানে ঢুকে ১০ কোটির সোনা লুঠ, চলল ২০ রাউন্ড গুলিও



 

পুবের কলম, পটনা: সাধারণ খদ্দের সেজে প্রায় ১০ কোটি টাকার সোনা লুঠের ঘটনার সাক্ষী থাকল বিহারের দ্বারভাঙা। জানা গিয়েছে, বুধবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে ওই দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এদিন ভিড়ে ভরা বিহারের দ্বারভাঙা বড়বাজারের লাঠ মার্কেটের একটি দোকান থেকে প্রায় ১০ কোটির সোনা-হীরের গয়না লুট করে পালায় একদল দুষ্কৃতী শুধু নাই নয়, স্থানীয়রা যাতে কিছু করতে সাহস না দেখান, ২০ রাউন্ড গুলিও চালায় দুষ্কৃতীরা।

জানা গিয়েছে, এ দিন থানা থেকে মাত্র ৮০০ মিটার দূরত্বে ডাকাতির ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন সাধারণ মানুষ। স্থানীয়রা নিরাপত্তার অভাব বোধ করছেন। এ নিয়ে রাজ্যে জঙ্গলরাজ চলছে বলে তোপ দেগেছেন বিরোধীনেতা তেজস্বী যাদব। ট্যুইটারেও তিনি তীব্র ক্ষোভ উগরে দেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, এদিন সকাল সাড়ে দশ'টা নাগাদ জন ডাকাত ক্রেতা সেজে প্রথমে দোকানে প্রবেশ করেতখন দোকানে অন্য কোনও ক্রেতা উপস্থিত ছিল না। অন্যদিকে, বাকি প্রায় ৬ জন দোকানের বাইরে ঘোরাফেরা করছিল। দোকানের কর্মীরা জানিয়েছে, ডাকাতরা ঢুকে প্রথমেই হীরের নেকলেস দেখতে চায়। তাদের ব্যবহার দেখে কোনওভাবেই কারও সন্দেহ হয়নি। ডাকাতদের সবারই বয়স প্রায় ৩০-এর ঘরে। তারা হিন্দি ও ভোজপুরী মিশিয়ে নিজেদের মধ্যে কথা বলছিল বলেও খবর। ডাকাতরা দোকানে প্রবেশ করে, কথা বলাবলি শুরু হতেই শূন্যে দু-রাইন্ড গুলি চালায়।এরপর সব গয়নার দাবি করে, দোকানের মালিক বাধা দিতে গেলে বন্দুকের বাঁট দিয়ে তাঁকে আঘাত করে এবং প্রাণে মারার হুমকিও দেয়। দোকানের কর্মীরা প্রথমে হকচকিয়ে যান। ডাকাতদের হাতে বন্দুক থাকায় অ্যালার্ম বাজানোর সাহসও দেখাননি।গয়নাগুলি ডাকাতদের দিয়ে দিলে ব্যাগে ভরে গুলি ছুড়তে ছুড়তেই মার্কেট ছেড়ে চম্পট দেয় তারা। পুলিসে খবর দেওয়া হবে, পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছয়জানা গিয়েছে, ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।দ্রুত তদন্তের জন্য ইতিমধ্যেই সিট গঠন করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only