শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০

আয়ুর্বেদ বলছে শীতে খান এই ৫ সবজি ও ফল

 



বিশেষ প্রতিবেদনঃ শীতের মরশুমে খাদ্য গ্রহণের ক্ষেত্রে সামঞ্জস্য রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই মরশুমে কিছু সবজি এবং ফল আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে রাখলে আপনার ইমিউনিটি ক্ষমতা শুধু বাড়বে তাই নয়, ছোট-ছোট রোগব্যাধি থেকেও রক্ষা করে। আয়ুর্বেদ অনুসারে এই সবজিগুলিকে শক্তিবর্ধক এবং রোগনাশক বলা হয়।



পালংশাক


পালংশাকঃ পালং-এ থাকে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ভিটামিন যা  শরীরের জন্য খুবই উপকারী। পালংশাকে থাকে ভিটামিন এ এবং সি। এতে ভিটামিনের মাত্রা খুব বেশি থাকায় হাড় এবং মাংসপেশীকে দৃঢ় রাখে। এছাড়া শীতের সংক্রমণ থেকেও আপনাকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে। 



বিট


বিটঃ বিট সারা বছরই পাওয়া যায় কিন্তু শীতের সময় শরীরের মেটাবলিজম কম হয়ে যায়। তাই এ সময়ে এমন ধরনের ফুড নেওয়ার কথা বলা হয় যা কম ক্যালরিযুক্ত হবে কিন্তু পুষ্টি মাত্রা বেশি থাকবে। সেদিক থেকে বিটরুট একটি আদর্শ সবজি।



মুলো


মুলোঃ ঠাণ্ডায় সবচেয়ে জনপ্রিয় সবজি এবং সালাডের জন্য মুলোকে আদর্শ বলা যায়। মুলোয় ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, কপার,ক্যালশিয়াম এবং মিনারেলস খুবই বেশি পরিমাণে থাকে। আয়ুর্বেদ অনুসারে এ ধরনের সবজি খেলে শরীর সবসময়ই সুস্থ থাকবে।



গাজর


গাজরঃ এই সবজিতে ক্যারোটিনের মাত্রা বাকি সবজি-ফলের থেকে অনেকটাই বেশি থাকে। এছাড়াও এতে অনেকগুলি ভিটামিন থাকে। যেমন, ভিটামিন বি,সি, ডি,ই এবং কে। মুলোর মতো গাজরের স্যালাডও খুবই জনপ্রিয় এবং তরকারিতেও এর জুড়ি নেই। ডায়ের হিসেবে গাজর দু-দিক থেকেই খুবই স্বাস্থ্যকর।



কমলালেবু


কমলালেবুঃ শীতকালে কমলালেবু খাওয়ার অনেকগুলি সুবিধা রয়েছে। এতে ভিটামিন সি খুব বেশি পরিমাণে থাকে, ফলে শীতে ব্যাকটেরিয়ার সঙ্গে লড়াই করতে আমাদের সাহায্য করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল এই ফলটি লো-ক্যালরি। ফলে ওজন বাড়ার কোনও ভয় নেই।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only