রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০

‘বিশ্বভারতীতে জন্ম রবীন্দ্রনাথের’,বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির মন্তব্যের নিন্দায় পথে তৃণমূল



পুবের কলম প্রতিবেদক:­ বাংলার সংস্কৃতির প্রতি বিজেপি উদাসীন। একথা প্রথম থেকেই দাবি করে আসছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। বিভিন্ন সময়ে বিজেপি নেতাদের মন্তব্য এমনটাই তুলে ধরছে, দাবি তৃণমূলের। কিছুদিন আগে বিদ্যাসাগরকে নিয়ে যেমনটি হয়েছিল, এবার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মস্থান নাকি বিশ্বভারতী। এমনই বেফাঁস মন্তব্য করেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে.পি. নাড্ডা। এ নিয়েই এবার পথে নামছে তৃণমূল। দলীয় সূত্রে এমনটাও খবর।

এ সম্পর্কে তৃণমূল নেত্রী ও সাংসদ মালা রায় বলেন, ‘বিজেপি কারও জন্মদিন জানে না, কারও জন্মস্থান জানে না’,বাংলা সংস্কৃতি নিয়ে বিজেপির যা জ্ঞান, তা সব মানুষকে জানাতে হবে। তাই ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মানুষের কাছে যাওয়া হবে। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, কুর্শি দখল করতে হলে তিনমাসে কি তা হয়? আগে তো সংস্কৃতি জানতে হবে। শুধু ক’দিন এলো, ভাষণ দিলো তা হলে তো হয়না!

প্রসঙ্গত, বুধবার রাজ্য সফরে আসেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে. পি. নাড্ডা। রাজ্যে এসেই তিনি রবীন্দ্রনাথের জন্মভূমি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন। যা নিয়েই তুমুল শোরগোল পড়ে গিয়েছে। উল্লেখ্য, বঙ্গ সফরে এসে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি মন্তব্য করেন, রবীন্দ্রনাথের জন্মস্থান বিশ্বভারতী। তাতেই ক্ষুব্ধ তৃণমূল। 

তৃণমূল সূত্রে খবর, কলকাতা-সহ রাজ্যের সর্বত্র আমরা লজ্জিত, আমরা ক্ষমাপ্রার্থী স্লোগান তুলে মিছিল ও সমাবেশ করবে তারা। টু্ইট করে তৃণমূল কংগ্রেস লিখেছে,‘কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৮৬১ সালে জোড়াসাঁকোতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এবং তার ৬০ বছর পরে ১৯২১ সালে তিনি বিশ্বভারতী প্রতিষ্ঠা করেন। বহিরাগতদের বাংলায় আসার আগে বাংলার সংস্কৃতি, ইতিহাস ও ঐতিহ্য জেনে আসা উচিত।’


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only