বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০

এবার চিনে রফতানি হবে ভারতের চাল



নয়াদিল্লি, ২ নভেম্বরঃ গত ৮ মাস ধরে লাইন অফ অ্যাকচু্যয়াল কন্ট্রোলে ভারতের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক চিনে দেখা দিয়েছে চালের আকাল। আর সবচেয়ে বিস্ময়কর বিষয় হল, দেশের মানুষের পেট ভরাতে ভারতের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে চিন। সরবরাহে ঘাটতি এবং কম দামের কারণে ভারতকে চাল রফতানির অর্ডার দিয়েছে চিন। প্রায় ৩০ বছর পর চিনের পক্ষ থেকে ভারতকে চাল রফতানির বরাত দেওয়া হয়। ভারতের উদ্যোগপতিরা রয়টার্সকে এই খবর জানায়। ভারত বিশ্বের সর্বাধিক চাল রফতানিকারক দেশ এবং চিন এই চালের সবচেয়ে বড় খরিদ্দার। বেজিং বছরে প্রায় ৪০ লক্ষ টন চাল আমদানি করে, কিন্তু উৎকর্ষতার দোহাই দিয়ে এতদিন ভারত থেকে চাল রফতানি বন্ধ রেখেছিল। কিন্তু এবার ভারত থেকেই চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে চিন প্রশাসন। আর ঠিক এমন সময়ই ভারতকে এই বরাত দেওয়া হল যখন এলএসিতে উত্তেজনা চরমে।

রাইস এক্সপোর্টস অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট বিবি কৃষ্ণ রাও জানান, ‘বহু দশক পর চিন ভারত থেকে চাল কিনছে। এবং আগামী বছর চালের উৎকর্ষতা দেূে রফতানি বাড়াতেও পারে।’ চিনের সরবরাহকারী দেশ থাইল্যান্ড,ভিয়েতনাম,মায়ানমার এবং পাকিস্তানের মতো দেশ থেকে আমদানি করার মতো পর্যাপ্ত চালের অভাব রয়েছে। এছাড়া ওইসব দেশ প্রতি টন চালে ভারতের চেয়ে অন্তত ৩০ ডলার বেশি দাবি করছে। সে কারণেই চিন এ বার ভারত থেকে চাল রফতানিতে বাধ্য হয়ে গিয়েছে। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only