বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০

ইকোপার্কের প্রাতঃভ্রমণে গিয়ে তৃণমূলের 'সব বেচে দে' প্রতিবাদের মুখে দীলিপ ঘোষ



পুবের কলম প্রতিবেদকঃপ্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে তৃণমূলের অভিনব প্রতিবাদের সামনে পড়তে হল বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। প্রায় প্রতিদিন ভোরে নিউটাউন ইকোপার্কের আইফেল টাওয়ার সংলগ্ন একটি ফাঁকা জায়গায় শরীরচর্চায় যান বিজেপির এই সাংসদ সভাপতি। বুধবারেও তিনি গিয়েছিলেন। কিন্তু নিত্যদিনের চিত্রের সঙ্গে এদিন সকালে অন্য ছবি সামনে পড়তে হল রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতা দিলীপ ঘোষকে। তিনি ইকোপার্কে নিয়মিত যে স্থানে শরীরচর্চা করেন, ঠিক তার খানিক'টা সামনে সাদা টি-শার্টে বিমান ও রেলের ছবি সহ লেখা 'সব বেচে দে' নামক গেঞ্জি পরিহিত জনা পঞ্চাশেক যুবক। তাঁরাও জোটবদ্ধ ভাবে দিলীপ ঘোষের সামনে দাঁড়িয়ে বিভিন্ন ভঙ্গিতে শরীরচর্চায় মত্ত ছিলেন। যুবকেরা সকলেই রাজারহাট নিউ টাউন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কর্মী বলে নিজেদের পরিচয় দিয়েছেন। 


দলটির নেতৃত্বে ছিলেন রাজারহাট নিউটাউনের তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি মুহাম্মদ আফতাব উদ্দিন। তিনি বলেন, ‘‘মোদী সরকার বেচারাম সরকারে পরিণত হয়েছে ৷ কেন্দ্রীয় লাভজনক সংস্থা রেল, এয়ার ইন্ডিয়া, ব্যাংক সহ রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন সংস্থাকে বিক্রি করে দিচ্ছে । তার বিরুদ্ধে একটা টোকেন প্রতিবাদ"। তবে ইকোপার্কেই কেন? এই প্রশ্নের উত্তরে তৃণমূল যুব নেতার বক্তব্য, ইকোপার্কে দিলীপ ঘোষের সামনে প্রতিবাদ শুধু নয়। রাজারহাট নিউটাউন জুড়ে প্রায় দু'হাজার যুবক 'সব বেচে দে' গেঞ্জি পরে পাড়ায় পাড়ায় ঘুরে কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে প্রচার শুরু করেছে। এদিন ছিল তারই একটি অংশ। যদিও দিলীপ ঘোষ এই বিষটিকে কটাক্ষ সুর চড়িয়ে বলেন, 'এতদিন দিদির অনুপ্রেরণায় সবকিছু কেনা বেচা করছিলেন। এখন দাদার অনুপ্রেরণায় শরীরচর্চা শুরু করছেন। ওদের ওয়েলকাম জানাচ্ছি। তবে, কে কাকে বেচছে সে তো সবাই জানে। ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার আগে সব বেচে দে। চলুন সব বিক্রি করুন। এরপর হবে সব কিনে নে। এই যে কেনা বেচার যে ব্যাবসা সেটা পশ্চিমবাংলায় আর চলবে না৷'

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only