রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০

রবীন্দ্রনাথের জাতীয় সংগীত বদলের দাবি বিজেপির, কড়া প্রতিক্রিয়া তৃণমূলের




নয়াদিল্লি: ১৩ ডিসেম্বর : বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের 'জনগণমন' শব্দ বদল করার দাবি জানালেন পদ্ম সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এক চিঠিতে এই দাবি জানিয়েছেন তিনি। সাংসদের বক্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছে তৃণমূল।


১ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী কে একটি চিঠি লেখেন সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তার দাবি, সিন্ধু প্রদেশ যেহেতু এখন আর ভারতের অংশ নয়, তাই জাতীয় সংগীতে ব্যবহৃত শব্দটি ছেঁটে ফেলতে হবে। জাতীয় সংগীতের বেশকিছু শব্দ নিয়ে অনাবশ্যক সংশয় তৈরি করছে। কাকে বা কোন জায়গাকে উদ্দেশ্য করে গানটি লেখা, স্বাধীনতা-পরবর্তী প্রেক্ষিতে তা অস্পষ্ট।  তাই জন গন মন এর  পরিবর্তে নেতাজির আজাদ হিন্দ ফৌজের গাওয়া ' শুভ সুখ চ্যান ' গানটি জাতীয় সংগীত হিসেবে গ্রহণ করার অনুরোধ জানিয়েছেন। 


১০ তারিখ প্রধানমন্ত্রী সেই চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করেছেন। টুইটারে তা পোস্ট করেছেন বিজেপি সাংসদ। পাশাপাশি আশা প্রকাশ করেছেন, ২০২১ এর ২৩ জানুয়ারির আগে জাতীয় সংগীত বদলে ফেলা হবে।


স্বামীর এই দাবির বিরোধিতা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায় বলেন, 'সিন্ধু শব্দের জন্য ওদের আপত্তি। যদিও ঐতিহাসিকদের মতে ভারতীয় সমাজ ব্যবস্থা সিন্ধু সভ্যতার অবদান। জাতীয় সংগীত এর উপর হামলা মানে বাঙালির গৌরব ও জাতীয় চেতনার মূলে আঘাত।'

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only