বৃহস্পতিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২০

আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের দ্রুত নিয়োগের দাবিতে বাম ছাত্র সংগঠনের মিছিল



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ ­নিয়োগের দাবিতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের কার্যালয় সল্টলেকের আচার্য ভবনের সামনে মঙ্গলবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থানে বসেছিলেন শতাধিক আপার প্রাইমারির চাকরিপ্রার্থীরা। বুধবার গভীররাতে আন্দোলনকারীদের সেখান থেকে জোর করে সরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। সেই ঘটনা নিয়ে ছড়ায় চাঞ্চল্যও। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ,সল্টলেকের ওই ভবনের সামনে থেকে জোর করে সরিয়ে এনে শিয়ালদা স্টেশন চত্বরে এনে ছেড়ে দেয় পুলিশ। পুলিশের অবশ্য দাবি, শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আন্দোলনকারীদের বৈঠক হয়েছে। তারপরও বিক্ষোভ চলছিল। তাই তাঁদের সরানো হয়েছে।

এদিকে সল্টলেক থেকে পুলিশ চাকরিপ্রার্থীদের সরানোর পরও ওই রাতেই মৌলালি ক্রসিংএ গিয়ে ফের অবরোধে বসেন তারা। পুলিশ সেখান থেকেও তাঁদের সরিয়ে দেয়। এই ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিকেলে বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলো  মিলিতভাবে ধর্মতলায় লেনিন মূর্তির সামনে থেকে জমায়েত করে মিছিল করে। বাম ছাত্র সংগঠনের দাবি, চাকরিপ্রার্থীদের দ্রুত চাকরিতে নিয়োগ করা হোক। বাম ছাত্রসংগঠনের প্রশ্ন, কেন আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের ওপর পুলিশ বলপ্রয়োগ করল? 

এদিকে চাকরিপ্রার্থীরা এদিন জানিয়েছেন, আপার প্রাইমারিতে নিয়োগের জন্য ২০১৫ সালে পরীক্ষা হয়। ২০১৬  সালে সেই পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। এরপর ২০১৯ সালের ৪ অক্টোবর মেধাতালিকা প্রকাশের পরও সংশ্লিষ্ট চাকরিতে কোনও নিয়োগ হয়নি। উল্লেখ্য, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ১৬ হাজার টেট পাশ করা চাকরিপ্রার্থীকে নিয়োগের কথা বলেছেন। ওয়াকিবহাল মহলের মতে এরপরও ভোটের আগে এ ধরনের আন্দোলন অন্য ইঙ্গিত বহন করে। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only