রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০

এখনও ঝাঁপবন্ধ ‘করোনার আঁতুড়ঘর’ উহানের সেই বাজার



পুবের কলম আন্তর্জাতিক ডেস্কঃকরোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল নিয়ে হরেক রকম তত্ত্ব শোনা গেলেও মোটামুটি ধরে নেওয়া হয়, করোনার আঁতুড়ঘর চিনের উহান। হুবেই প্রদেশের রাজধানী এই উহান শহর থেকেই নাকি গতবছর শেষদিকে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস বিশ্বময় ছড়ায়। যে জন্য পশ্চিমারা প্রথমদিকে একে উহান ভাইরাস বলত। পরে চিনের প্রবল আপত্তিতে নাম বদলে হয় কোভিড বা নভেল করোনা ভাইরাস। শোনা যায়, উহানের সি ফুড মার্কেট থেকেই কোভিড ভাইরাসের জন্ম। বহুকাল ধরে এই মার্কেটে দিনভর থিকথিকে ভিড় থাকত। মাছ, মাংস-সহ বন্যপ্রাণী বা জীবজন্তু বেচাকেনার জন্য কয়েক হাজার দোকান ছিল এখানে। এখন সেই মার্কেট বিরান পড়ে রয়েছে। করোনার কারণে গতবছর ৩১ ডিসেম্বর থেকে বন্ধ উহান মার্কেট। 

যেখানে দেদার বিকোত বন্য জীবজন্তু এবং সামুদ্রিক প্রাণী। হাঁস,মুরগি,কুকুর,ছাগল,খরগোশ,সামুদ্রিক মাছ,চামচিকি, বাদুড়,সাপ,আরশোলা,গিরগিটি থেকে শুরু করে কীটপতঙ্গের পসরা সাজিয়ে বসতেন ব্যবসায়ীরা। গতবছর ডিসেম্বরে উহান শহরের বেশ কয়েকজনের নতুন ধরনের নিউমোনিয়া ধরা পড়ে। তাদের পরিচয় গোপন রাখা হলেও জানা যায়, ক্রেতা অথবা বিক্রেতা হিসেবে উহান মার্কেটে এরা নিত্যদিন যাতায়াত করতেন। এরপরই গোটা শহরে ৭৫দিন লকডাউন জারি হয়। মাত্র কয়েক ঘন্টার জরুরি নোটিশে গৃহবন্দি হয়ে পড়েন কয়েক লক্ষ মানুষ। তারপর দ্রুত সংক্রামিত হয় একের পর এক দেশ। অবশ্য মাস চারেক পর উহান-সহ সমগ্র চিন অনেকখানি করোনা-মুক্ত হয়। কিন্তু একবছর কেটে গেলেও গোটা বিশ্ব এখনও অতিমারির সঙ্গে লড়াই করছে। ইতিমধ্যে প্রায় ২০০ দেশে ১৫ লক্ষাধিক মানুষের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এপ্রিল থেকে চিনের বিভিন্ন শহর ও অঞ্চল স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে শুরু করে। কিন্তু প্রায় ১ বছর ধরে ঝাঁপবন্ধই রয়েছে উহান মার্কেটের। করোনার উৎপত্তিস্থল নিয়ে ব্লেম গেমের নেপথ্যে থাকা এই মার্কেটের কারণেই আমেরিকার সঙ্গে চিনের কূটনৈতিক সম্পর্ক এক ধাক্কায় অনেকখানি তলানিতে পৌঁছায়। রাষ্ট্রসংঘ এবং হু-র তরফে করোনার উৎস সন্ধানে উহান সফরে বিশেষজ্ঞদের পরিদর্শনের কথা বলা হলেও আজও তা হয়নি। তবে করোনার উৎস নিয়ে নানা মুনির নানা মত। কেউ কেউ বলেন, উহান বাজারে বিকিকিনি হওয়া জীবজন্তু ও বন্যপ্রাণী থেকেই করোনা মানবদেহে সংক্রমিত হয়েছে। অনেকের মতে, কোনও বিদেশি ব্যক্তি সুপারস্প্রেডার হিসেবে এই কাণ্ড ঘটাতে পারে। চিনের অভিযোগ ছিল, মার্কিন সেনারা বেজিং সফরে গিয়ে করোনা-ভাইরাস ছড়িয়ে দিয়েছিল। তবে বিষয়টির নিষ্পত্তি এখনও হয়নি। অভিযোগ, পালটা অভিযোগ সবই আন্দাজ-অনুমানের ওপর ভিত্তি করে। কোনও তত্ত্বই প্রমাণ হয়নি। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only