মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২১

বিজেপিকে খেদিয়ে পগার পার করার ডাক অনুব্রতর

 

ছবিঃ তথাগত রায় 


দেবশ্রী মজুমদার, মুরারই, ০৫ জানুয়ারী: বিজেপিকে খেদিয়ে পগার পার করার ডাক  দিল জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। মঙ্গলবার বিকেলে মুরারই- ১ ব্লকের পলসা কারবালা মাঠে জনসভা ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের। উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূল সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব ভট্টাচার্য, অসিত মাল, সৈয়দ সিরাজ জিম্মি, বিনয় ঘোষ, আলি খান প্রমুখ। 

এদিনের সভা থেকে যুবকদের উদ্যেশে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, গ্রাম্য ভাষায় আমি আপনাদের বলি,  বিজেপিকে খেদিয়ে পগার পার করতে পারবেন না? সংখ্যালঘু অধ্যুষিত মুরারইয়ে মীম পার্টি থাবা বসাতে পারে, এই আশঙ্কা থেকে, মীমকে ভোট না দিতে অনুরোধ করেন তিনি। তিনি বলেন, মীম বিজেপির বি টিম।  তারপর তিনি বলেন, মনে রাখবেন, দিদি থাকলে, বাংলা থাকবে। দিদি না থাকলে বাংলা থাকবে না। অন্ধকার নেমে আসবে। তারপর বিজেপিকে উদ্যেশ্য করে অনুব্রত বলেন, এরা মানুষের পাশে থাকে না। এরা দেশকে শেষ করে দেবে। দেশকে বিক্রি করে দেবে। বাংলাকে বিক্রি করে দেবে। ভুল করবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবার পাশে থাকেন। সব জাতি, সব কৃষকের পাশে থাকেন। এরপর দশ বছরে রাজ্য সরকারের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরেন অনুব্রত। মঞ্চ থেকে সামনে উপস্থিত কর্মী সমর্থকদের উদ্যেশে তিনি প্রশ্ন করে বলেন, বলুন তো দশ বছরে কত প্রকল্প হয়েছে?  রূপশ্রী কার প্রকল্প? যুবশ্রী কার প্রকল্প? খাদ্যসাথী কার করা? কন্যাশ্রী কার করা?  স্বাস্থ্য সাথী কার করা? কৃষক বন্ধু কার প্রকল্প? ৬৮ টি প্রকল্প করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বিজেপির প্রলোভন সম্পর্কে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, উপর থেকে অনেক টাকার লোভ দেখাবে। টাকা কারো বাপের না। টাকা নেবেন। টাকা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোট দেবেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলে, তা করে। আবার ৫১ হাজার স্কুলের চাকরি দিচ্ছে। কিন্তু মোদী সরকার ৭৫ লক্ষ চাকরী দেব বলেছিল। সে কথা তুলে নিল কেন? তারা প্রমাণ করেছে, তারা মিথ্যেবাদী। শিক্ষা, স্বাস্থ্য সব ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের উন্নয়নের উল্লেখ করেন অনুব্রত। পাশাপাশি, বিজেপির সাম্প্রদায়িকতা উল্লেখ করে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবার কথা ভাবেন, কিন্তু তাঁকে কটাক্ষ করে বলা হয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুসলমানের। মমতা বেগম। বিজেপির সোনার বাংলা গড়ার ডাককে কটাক্ষ করে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, তোমরা কেন মধ্যপ্রদেশকে সোনার মধ্যপ্রদেশ করতে পারছো না? কেন উত্তরাখণ্ডকে পারছো না, সোনার উত্তরাখণ্ড করতে? পারবে না। তুমি বাংলাকে বোকা ভেবেছো? তুমি মিথ্যাবাদী। মিথ্যেবাদী বিজেপি দল। এদিন সভা মঞ্চে প্রায় এক শত পরিবারের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন অনুব্রত মণ্ডল। 

এদিন তারাপীঠে পুজো দিতে আসেন বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় আসেন। তিনি বলেন, এবার বিধানসভা ভোটে বুথে বুথে মস্তানি করতে অনুব্রত ঘুরলে চামড়া গুটিয়ে দেওয়া হবে। 

তার জবাবে মুরারইয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, বেড়াল ছানার জবাব তিনি দেবেন না।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only