বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২১

ক্যানসারে আক্রান্ত ২০০ রোগীর ৫ কোটি টাকা বিল মওকুফ করে নায়ক মুসলিম চিকিৎসক

 


আরকানসাস, ৭ জানুয়ারিঃ­ মহামারির মাঝে নিজেদের চিকিৎসার খরচ মেটাতে হিমশিম খাচ্ছিলেন ২০০ জনের মতো ক্যানসার রোগী। কীভাবে হাপাতালের লম্বা-চওড়া বিল পরিশোধ করবেন,তা ভেবে রাতের ঘুম হারিয়েছিলেন তারা। কিন্তু হঠাৎই একদিন তারা জানতে পারলেন তাদের বিল মওকুফ করে দিয়েছেন একজন মুসলিম মার্কিন চিকিৎসক। এক বা দুই লক্ষ টাকা নয়, একেবারে ৬ লক্ষ ৫০ হাজার ডলার বা পাঁচ কোটি টাকা! ড. ওমর আতিক আমেরিকার আরকানসাস অঙ্গরাজ্যের চিকিৎসক। তিনি বুঝতে পেরেছিলেন করোনার কারণে তার রোগীদের একটি বড় অংশ চিকিৎসার ব্যয় বহন করতে অক্ষম। এরপর স্ত্রীর সঙ্গে শলাপরামর্শ করে তিনি সিদ্ধান্ত নেন ওই বিপুল বিল মওকুফ করবেন। তবে মহানুভবতার এই বিরল নিদর্শন তৈরি করার পর চড়া মাশুলও গুনতে হয়েছে তাঁকে। প্রায় ৩০ বছর ধরে চালানো ক্লিনিকটি অর্থাভাবে গতবছর বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন তিনি। 


ঘটনাটি গতবছরের ক্রিসমাসের। রোগীদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের জন্য একটি পাওনা আদায়কারী সংস্থার সাহায্য নিয়েছিলেন তিনি। এসময় তিনি জানতে পারেন, তার রোগীদের আর্থিক দুর্দশার কথা। এরপর তিনি ২০০ রোগীকে উদ্দেশ্য করে একটি চিঠি লিখে জানান যে তাদের বকেয়া মওকুফ হয়েছে। পাকিস্তানি বংশোদ্ভ(ত ড. আতিক ১৯৯১ সালে আরকানসাস অঙ্গরাজ্যের পাইন ব্লাফ শহরে একটি ক্যানসার ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করেন। সেই ক্লিনিকে কেমোথেরাপি, রেডিয়েশন থেরাপির মতো চিকিৎসা দেওয়া হয়। ড. ওমর আতিক বর্তমানে লিটল রকের ইউনিভার্সিটি অফ আরকানসাস ফর মেডিক্যাল সায়েন্সেসে একজন অধ্যাপক হিসাবে নিযুক্ত রয়েছেন। সম্প্রতি এবিসি নিউজের গুড মর্নিং নামক এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘আমার মনে হল মহামারির মধ্যে বহু মানুষ ঘর হারিয়েছে, অনেকের আপনজন মারা গিয়েছেন এবং ব্যবসা বাণিজ্যও বহু মানুষ সর্বস্বান্ত হয়েছেন। তাই বকেয়া মওকুফের জন্য এর চেয়ে ভালো সময় আর ছিল না।’ এ ধরনের মানবিক কাজ করার পর থেকেই আমেরিকায় প্রচারের আলোয় এসেছেন আতিক। বহু মানুষের দোয়া সঙ্গে নিয়ে পুনরায় নিজের বন্ধ হয়ে যাওয়া ক্যানসার ক্লিনিকটি খোলার চেষ্টা করছেন তিনি। 






একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only