শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২১

ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক থেকে কেন্দ্রকে তুলোধনা কংগ্রেসের, নয়া সভাপতি নির্বাচন জুনে



নয়াদিল্লি, ২২ জানুয়ারি: শুক্রবার কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের দিকে তাকিয়ে ছিল রাজনৈতিক মহল৷ দলের নতুন সভাপতি হিসেবে কে আসতে চলেছেন, তা এদিন আলোচনা হবে বলে খবর ছিল৷ কিন্তু এদিন বৈঠকের পর কেসি বেনুগোপাল জানিয়ে দিলেন, কংগ্রেসের নয়া সভাপতি নির্বাচন জুন মাসে৷ দলের এটাই আপাতত সিদ্ধান্ত৷ সোনিয়ার হাতেই থাকবে দলের রাশ৷ প্রসঙ্গত, শেষ ওয়ার্কিং কমিটির নির্বাচন হয়েছিল ১৯৯৭ সালে৷ 


তবে সভাপতি নির্বাচন নিয়ে সমস্যা না মিটলেও কংগ্রেস এদিন কৃষি আইন, অর্ণব গোস্বামীর চ্যাট ফাঁস ইত্যাদি বিষয়ে একহাত নিয়েছে মোদি সরকারকে৷ সোনিয়া এদিন বলেন, দেশের নিরাপত্তার গোপনীয়তা কী ভাবে লঙ্ঘিত হয়েছে তা নিয়ে খুব সম্প্রতি উদ্বেগজনক খবরাখবর প্রকাশিত হয়েছে। দিনকয়েক আগেই প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ কে অ্যান্টনি বলেছিলেন, সামরিক অভিযানের অত্যন্ত গোপন সরকারি তথ্যা ফাঁস হওয়াটা আসলে দেশের সঙ্গেই বিশ্বাসঘাতকতা। এর পরেও মোদি সরকার মুখে কুলুপ এঁটে রয়েছে। সব কিছু ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চলছে। যারা অন্যদের দেশপ্রেমিক আর জাতীয়তাবাদীর সার্টিফিকেট দিয়ে চলেছে, এ সবের ফলে তাদের মুখোশ খুলে যাচ্ছে আসলে৷ 

সোনিয়ার অভিযোগ, অসংবেদনশীলতা এবং অহঙ্কারের সমস্ত সীমারেখা অতিক্রম করে ফেলেছে এই বিজেপি সরকার। কৃষি আইন তাড়াহুড়োয় পাশ করানো হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন সোনিয়া। তিনি বলেন, সংসদে কৃষি আইনকে ঠিক মতো বোঝার সুযোগই দেওয়া হয়নি, আর এখন বৈঠক চলছে। সোনিয়ার দাবি, কংগ্রেস ইতিমধ্যে তিনটি আইনই প্রত্যাখ্যান করেছে, কারণ এই আইন এমএসপি ও খাদ্য সুরক্ষা নিয়ে বড়সর প্রশ্ন তুলে দিয়েছে৷ কৃষক 

আন্দোলনের প্রতি সরকার চরম অসহিষ্ণুতা দেখিয়েছে। আন্দোলনকে দমন করার চেষ্টা করেছে এবং এখনও করে চলেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন৷ কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালাও এদিন বলেন, দেশের কৃষকরা জেগে গেছে৷ মোদিজি এবার দয়া করে উঠে পড়ুন৷

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only