সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১

বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশে যৌন লালসার শিকার বিধবা মহিলা, গোপানাঙ্গে ঢোকানো হল রড

 



ভোপাল, ১১ জানুয়ারি: উত্তরপ্রদেশ, ঝাড়খন্ডের পর এবার মধ্যপ্রদেশ। দেশে যৌন লালসায় কোনও ছেদ পড়ছে না। নির্ভয়া গণধর্ষণের ছায়া এবার শিবরাজ সিং চৌহানের রাজ্যে। যৌন লালসার শিকার এক বিধবা। ধর্ষকরা শুধু যৌন লালসা মিটিয়েই ছেড়ে দেয়নি। গণধর্ষণের পর নির্যাতিতার গোপনাঙ্গে ঢুকিয়ে দেয় লোহার রড। জেলা সদর থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরে সিধি জেলার আমালিয়া থানা এলাকায় শনিবার গভীর রাতের এই ঘটনা ঘটনায় আতঙ্কর সূষ্টি করেছে এলাকায়।

ঠিক কী হয়েছিল ঘটনাটি? পুলিশ সূত্রে খবর, শনিবার রাতে অভিযুক্তরা আসে। অভিযুক্তরা তাঁর কাছে জল চায়। মহিলা রাতে জল দিতে অস্বীকার করলে, তারা ঝুপড়িতে জোর করে ঢুকে তাঁকে একেএকে ধর্ষণ করে। এতেও তাদের পাশবিকতা মেটেনি। পালিয়ে যাওয়ার আগে তারা নির্যাতিতার যৌনাঙ্গে একটি লোহার রড ঢুকিয়ে দেয়। পুলিশ আরও জানিয়েছে, প্রায় চার বছর আগে নির্যাতিতার স্বামী মারা যান। তিনি দুই নাবালক সন্তান এবং তার বোনকে নিয়ে একটি ঝুপড়িতে থাকেন। সেখানেই একটি গুমটি দোকান চালান মহিলা।

অটোরিকশায় করে ওই অবস্থায় নির্যাতিতাকে আমালিয়া পুলিশে স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠান হয়। পরে তাঁকে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাঁকে রেফার করা হয় সঞ্জয় গান্ধি মেডিকেল কলেজে হয়। হাসপাতালের স্ত্রীরোগ বিভাগের প্রধান চিকিৎসক কল্পনা যাদব বলেন, নির্যাতিতাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় এখানে আনা হয়েছিল। যৌনাঙ্গে রড ঢোকানোর কারণে ক্ষত তৈরি হয়েছে। তাকে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তিনি এখন বিপন্মুক্ত। 

রেওয়া রেঞ্জের আইজি উমেশ জোগা জানান, নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ একটি মামলা দায়ের করেছে। ইতিমধ্যে ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্তরা ওই গ্রামেরই বাসিন্দা বলে জানা যাচ্ছে। পুলিশ ৩৭৬,৩২৪,৫৪২, ৩৪ ধারায় মামলা দায়ের করেছে করেছে। অভিযুক্তদের মধ্যে দু'জনের পরিচয় লাল্লু কোল, ভাইলাল প্যাটেল। অভিযুক্তরা দ্রুত শাস্তি পাবে বলে আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only