সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১

ব্রিটিশদের পদাঙ্ক অনুসরণকারি ধর্মীয় বিভাজকদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর শপথ স্বরুপনগর ইসলামিয়া পাঠাগারের সাধারণ সভায়

 



ইনামুল হক, বসিরহাটঃ মোগলরা সাতশ বছরের শাসক হিসেবে ধর্মীয় বিভাজন ঘটিয়ে অন্য ধর্মের মানুষের উপর জুলুম-অত্যাচার করেনি।বরং পরধর্ম সহিষ্ণুতার পরিচয় দিয়ে তারা দেশের ধর্মীয় সংস্কৃতি ও সাম্প্রদায়িক ঐতিহ্যকে মজবুত করে ধরে রাখার চেষ্টা করেছে। পরে ব্রিটিশরা দুশো বছর ধরে দেশ শাসন করে ধ্বংসের পথে নিয়ে গিয়েছে  ভারতবর্ষের সম্প্রীতির ঐতিহ্যকে। আজ  ব্রিটিশদের পদাঙ্ক অনুসরণ করে দেশের  এক অশুভ শক্তি  মানুষের মধ্যে জাতিতে জাতিতে ও ধর্মীয় সম্প্রদায়ে  ভাগ করার জোরদার চেষ্টা চালাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে সকলকে রুখে দাঁড়াতে হবে। রবিবার  উত্তর ২৪ পরগনার স্বরুপনগর ইসলামিয়া পাঠাগারের ৩৯ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন সারাবাংলা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশন এর রাজ্য সম্পাদক মুহাম্মদ কামরুজ্জামান। তিনি বলেন,পরধর্ম সহিষ্ণুতার  দৃষ্টান্ত মুসলিম শাসক তথা মোগলরা রেখে গিয়েছেন। বর্তমান ভারতবর্ষের তথাকথিত একটি সম্প্রদায়ের রাজনৈতিক দলের নেতারা যেভাবে বিভাজনের নোংরা খেলায় মেতেছেন তা না আটকাতে পারলে অচিরেই এই দেশের গণতন্ত্রের কাঠামো ও সংবিধান ভুলুণ্ঠিত হবে। গণতন্ত্রের উপর এই আঘাতকে রুখে দিতে যুবসমাজকে বেশি করে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের সভাধিপতি তথা স্বরূপনগরের বিধায়িকা বীনা মন্ডল। তিনি স্বরুপনগর ইসলামিয়া পাঠাগারের সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সংস্কৃতিক চেতনার প্রশংসা করে এই পাঠাগারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। সম্প্রীতির চেতনায় যুবসমাজকে উদ্বুদ্ধ করতে দেশাত্মবোধক সঙ্গীত পরিবেশন করেন সাহিত্যকর্মী ও তরুণ গায়ক তরণী চট্টোপাধ্যায়। কবিতা পাঠ করেন কবি রমজান আলি। বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট গবেষক ও অধ্যাপক ড. মুস্তাফা আব্দুল কাইয়ুম, কবি আমির আলী, ওয়েস্ট বেঙ্গল মাইনোরিটিস  ডেভলপমেন্ট সেন্টার এর চেয়ারম্যান রফিকুল হাসান, তরুণ সাহিত্যিক ও শিক্ষক আহমেদ সাকির, সজাগ মঞ্চের সম্পাদক বাহারুল ইসলাম, স্বরূপনগর পঞ্চায়েত সমিতির বনওভূমি কর্মাধ্যক্ষ রমেন সরদার, প্রাক্তন প্রধান আবেদ আলী গাজী, নারকেলবাড়িয়া শহীদ তিতুমীর মিশনের  সম্পাদক রবিউল  হক, নাট্যব্যক্তিত্ব রফিউদ্দিন,  সমাজসেবী কিংকর মন্ডল, সারা বাংলা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশন এর বসিরহাট জেলা সম্পাদক আহসানুল ইসলাম, পাঠাগারের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী  প্রমুখ। এদিনের অনুষ্ঠানে পাঠাগারের মুখপাত্র আলহামরার দ্বাদশ সংখ্যা প্রকাশিত হয়। সম্পাদকীয় প্রতিবেদন পাঠ করেন পাঠাগার সম্পাদক মাওলানা রওশন আলী। সভাপতিত্ব করেন নুরুল ইসলাম সরদার। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ইমরান মন্ডল ও সহ সম্পাদক ইছাক মন্ডল। কালাম পাক তেলাওয়াত করেন মাওলানা আব্দুর রহমান সরদার ও হাফেজ মাওলানা শামসুল হুদা ও ক্বারী রফিকুল ইসলাম। নাত পরিবেশন করে মাসুদ সরদার, উর্দু সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিক্ষক জাহাঙ্গীর মৃধা। আখেরি মোনাজাত করেন হাফেজ তরিকুল ইসলাম।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only