রবিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২১

কো-ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে অংশ নেওয়ার ৯ দিন পরে মৃত্যু স্বেচ্ছাসেবকের




পুবের কলম প্রতিবেদকঃজোড়া প্রতিষেধকে অনুমোদন দিয়েছেন ডিসিজিআই। আনন্দে আত্মহারা গোটা দেশ। তার মধ্যেই ট্রায়ালে অংশ নিয়ে প্রাণ হারালেন ভোপালের স্বেচ্ছাসেবক। কো-ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে অংশগ্রহণ করার ৯ দিন পরেই  মৃত্যু হল তাঁর। যদিও ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে বলা হচ্ছে বিষক্রিয়ায়  মৃত্যু হয়েছে ওই স্বেচ্ছাসেবকের।

ভারত বায়োটেক সারাদেশে তৃতীয় পর্বের ট্রায়াল চালাচ্ছে। ১২ ডিসেম্বর ট্রায়ালে অংশগ্রহণ করেছিলেন ৪২ বছরের ওই ব্যক্তি। মধ্যপ্রদেশের পিপলস মেডিক্যাল কলেজে হয়েছিল তাঁর পরীক্ষামূলক টিকাকরণ। তারপরেই ২১ ডিসেম্বর প্রাণ হারান দীপক মারাওয়ই নামে ওই ব্যক্তি।

পরিবারের দাবি, ১৭ ডিসেম্বর তাঁর কাঁধে ব্যথা শুরু হয়। পরবর্তী দু’দিন তাঁর মুখ দিয়ে গ্যাঁজলা বেরোতে শুরু করে। এরপর তাঁর  মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে বিষক্রিয়ার কথা বলা হলেও ভিসেরা রিপোর্ট এলে এই বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে। যে হাসপাতালে দীপক পরীক্ষামূলক টিকা নিয়েছিলেন, সেই হাসপাতালের ভাইস চ্যান্সেলর ড. রাজেশ কপুর দাবি করেছেন, সমস্ত নিয়ম মেনেই টিকা দেওয়া হয়েছিল দীপককে। তবে তাঁকে টিকা না প্লাসেবো দেওয়া হয়েছিল, এখনও এই বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু জানাননি রাজেশ।

মৃত্যুর কারণ হিসাবে টিকার যোগ উড়িয়ে দিয়েছে নির্মাতা ভারত বায়োটেকও। তাদের দাবি ৯ দিন পরে ওই ব্যক্তির  মৃত্যু হয়েছে। অর্থাৎ প্রাথমিক পর্যালোচনা থেকেই বোঝা যাচ্ছে টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় এই  মৃত্যু হয়নি। প্রসঙ্গত, তৃতীয় পর্বের ট্রায়ালের ফল আসার আগেই আপৎকালীন ‘ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল মোডে’ অনুমোদন পেয়েছে কো-ভ্যাকসিন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only