সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১

৬ তরুণীকে বিহার থেকে উদ্ধার করল ডায়মন্ড হারবার মহিলা থানার পুলিশ


পুবের কলম প্রতিবেদক: লক ডাউনের সময় পারিবারিক অভাবের জেরে ভিন রাজ্যে কাজে যেতে বাধ্য হয় ডায়মন্ড হারবারের ৩ তরুণী। জানতে পারেনি যে তারা পাচারচক্রের খপ্পরে পড়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিয়ে বাড়িতে নাচের কাজ দেওয়ার টোপ দিয়ে ডায়মন্ড হারবার থানা এলাকার ওই ৩ তরুণীকে বিহারের ইস্ট চম্পারনে নিয়ে যায় সুন্দরবন এলাকার এক মহিলা। বিহারে নিয়ে যাওয়ার আগে ওই তরুণীদের অগ্রিম ২ হাজার টাকা করে দেওয়া হলেও প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রাপ্য টাকা পরে আর দেওয়া হয়নি।এমনকি ৩ মাস ধরে ওই তরুণীদের ঘরের মধ্যে আটকে তাদের উপর চলে পাশবিক অত্যাচারও। নির্যাতিত তরুণীরা ঘটনার খবর লুকিয়ে পরিবারের লোকজনকে জানায়। পরিবারের লোকজন ডায়মন্ড হারবার থানায় ১ জানুয়ারি অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্তে নামে ডায়মন্ড হারবার মহিলা থানা। মহিলা থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক অমৃতা দাসের নেতৃত্বে একটি টিম বিহারে তরুণীদের উদ্ধার অভিযান চালায়। 

পুলিশ আরও জানায়, আটকে  পড়া  তরুণীদের ফোনের টাওয়ার লোকেশন ধরে ডায়মন্ড হারবার থেকে গত ৭ জানুয়ারি বিহারের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় ডায়মন্ড হারবার মহিলা থানার ওসিসহ ৬ জনের একটি টিম।

মূলত টাওয়ার লোকেশন ধরে  বিহারের মতিহারের ইস্ট চম্পারনের কুন্দওয়ার চেইনপুরের এক তালা বন্ধ ঘরের মধ্যে থেকে ৬ তরুণীকে উদ্ধার করে মহিলা থানার পুলিশ। 

এ বিষয়ে মহিলা থানার ওসি অমৃতা দাস জানান, ৩ জন তরুণী উদ্ধারের জন্য বিহারে যান তারা। কিন্তু সেখানে পৌঁছে ডায়মন্ড হারবারের ৩ তরুণীর পাশাপাশি আরও ৩ জন সুন্দরবন এলাকার তরুনীকেও উদ্ধার করা হয়। অবশ্য এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only