বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

জাকির হোসেন কাণ্ডে রিমোট কন্ট্রোলে বিস্ফোরণ! তদন্তে সিআইডি, সিআইএফ ও এসটিএফ

মুর্শিদাবাদ: মন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপর প্রাণঘাতী হামলার ঘটনায় দ্রুত তদন্তের নির্দেশ দিল রাজ্য সরকার। তিনটি সংস্থা এই ঘটনার তদন্ত করবে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শ্রম দফতরের প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপর প্রাণঘাতী হামলার তদন্তে সত্য উদ্ঘাটনে সিআইডি, সিআইএফ ও এসটিএফ– এর ওপর দায়িত্ব দিয়েছেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার বলেছেন, 'সত্যি ঘটনা খুঁজে বের করাই আমাদের কাজ। সেইসঙ্গে তিনি নিমতিতা স্টেশনে কম আলো থাকা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন।


 

বুধবার রাত ৮টা নাগাদ কলকাতাগামী ট্রেন ধরতে যাওয়ার জন্য গাড়ি নিয়ে রওনা দিয়েছিলেন শ্রম দফতরের প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। নিমতিতা স্টেশনের ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে মন্ত্রীকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া হয়। ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৪ জন। রাতেই মন্ত্রীকে প্রথমে জঙ্গিপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর বৃহস্পতিবার ভোর চারটে পঁয়তাল্লিশ নাগাদ কলকাতায় নিয়ে আসা হয় জাকির হোসেনকে এসএসকেএমের ট্রমা কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসা চলছে তাঁর। আপাতত মন্ত্রীর অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে। চিকিৎসায় তিনি সাড়া দিচ্ছেন বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।


এদিকে এই ঘটনায় আলাদাভাবে তদন্ত শুরু করেছে আরপিফ ও  সিআরপিএফ।

তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিশ সমস্ত কথা জানাতে নারাজ। সূ্ত্রের খবর, মন্ত্রী জাকির হোসেনের ঘটনা পূর্ব পরিকল্পিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে প্রাথমিক অনুমান। এই ঘটনার পিছনে রিমোট কন্ট্রোল যোগ সামনে আসছে। সেই সঙ্গে স্টেশনে আলো অত্যন্ত কম থাকার ফলে অপরাধ সহজেই সংঘটিত করা সম্ভব হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে।তবে সমস্ত কিছুই এখন তদন্তসাপেক্ষ্য।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only