রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

জামাল খাশোগি সউদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান হত্যার অনুমোদন দিয়েছিলেন, আমরিকা

ওয়াশিংটন: সউদি ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান ২০১৮ সালে, নির্বাসিত সউদি সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার অনুমোদন দিয়েছিলেন বলে মার্কিন এক গোয়েন্দা প্রতিবেদনে উঠে এসেছে আমেরিকার স্থানীয় সময় শুক্রবার বাইডেনের প্রশাসন এই সংক্রান্ত প্রতিবেদনটি প্রকাশ করে

তার আগে বৃহস্পতিবার সউদি প্রিন্সের সঙ্গে কথা বলেন বাইডেন সেখানে বলা হয়েছে যে তুরস্কের ইস্তান্বুলে গিয়ে খাশোগিকে ধরতে বা খুন করতে যে অভিযান চালানো হয়েছিল যুবরাজ মুহাম্মদ ওই পরিকল্পনার অনুমোদন দিয়েছিলেন

আমেরিকা বেশ কয়েকজন সউদি নাগরিকের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলেও খোদ যুবরাজের ওপর এমন কোনও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেনি সউদি আরব এই প্রতিবেদনটি প্রত্যাখ্যান করে বলেছে যে এটি নেতিবাচক মিথ্যা এবং অগ্রহণযোগ্য ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ যিনি কার্যত দেশটির শাসক তিনিও এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে তার জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন



খাশোগি যখন তুরস্কের ইস্তান্বুলে সউদি কনসুলেটে গিয়েছিলেন তখনই তাঁকে হত্যা করে তাঁর দেহ খণ্ড বিখণ্ড করা হয় ৫৯ বছর বয়সি এই সাংবাদিক একসময় সউদি সরকারের উপদেষ্টা এবং রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ ছিলেন তবে এক পর্যায়ে তিনি সব আনুকূল্য হারান এবং ২০১৭ সালে নিজেই যুক্তরাষ্টের নির্বাসনে চলে যানসেখান থেকে তিনি ওয়াশিংটন পোস্টে একটি মাসিক কলাম লিখতেন যেখানে তিনি যুবরাজ মুহাম্মদের নীতির সমালোচনা করেন

 মার্কিন জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ডিরেক্টর অব ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্সের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে আমরা ধারণা করছি সউদি  আরবের ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান ইস্তান্বুলে সউদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি গ্রেফতার বা হত্যার জন্য একটি অভিযানের অনুমোদন দিয়েছিলেন

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only