রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

ত্রিপুরায় কোভিশিল্ড নেওয়ার পরে আক্রান্ত ১১!

ত্রিপুরা: টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার পরেও করোনায় আক্রান্ত হলেন ১১ জন স্বাস্থ্যকর্মী। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ত্রিপুরায়। টিকা নেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই ওই স্বাস্থ্যকর্মীদের শরীরে এই রোগ বাসা বেঁধেছে।

জানা গেছে, ত্রিপুরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে টিকাকরণ চলাকালীনই সেখানে করোনায় আক্রান্ত হন ২৬ জন স্বাস্থ্যকর্মী। এর মধ্যে ১১ জন ইতিমধ্যেই করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন।

ত্রিপুরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মিশন ডিরেক্টর ডা: সিদ্ধার্থ জয়সওয়াল জানিয়েছেন, ২৬ জন স্বাস্থ্যকর্মীর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তাদের মধ্যে ১১ জন স্বাস্থ্যকর্মী কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন।



উপসর্গ দেখা দিতেই ওই স্বাস্থ্যকর্মীদের RAT (Rapid Antigen Test) করানো হয়। সেই রিপোর্টে পজিটিভ এসেছে। আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য তাদের স্যাম্পেল গুলি নিয়ে আর টি-পিসিআর টেস্টের জন্য পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনা টিকাকরণ কর্মসূচিতে প্রথম থেকেই এগিয়ে আছে ত্রিপুরা। ইতিমধ্যেই সেখানে ৮৪ শতাংশ স্বাস্থ্যকর্মীকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। প্রথম সারিতে দাঁড়িয়ে যারা যুদ্ধ করেছেন তাদের মধ্যে ৭০ শতাংশের টিকাকরণ সম্পূর্ণ হয়েছে। সংক্রামণ যাতে আর না ছড়াতে পারে তার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে হাসপাতালে আউট ডোর। জানুয়ারি ও ফেব্র&য়ারির প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত ত্রিপুরায় কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি। কিন্তু হঠাৎ করেই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর আসতে থাকে। শুক্রবার রাতেই এই নির্দেশ দেন দক্ষিণ ত্রিপুরার জেলাশাসক ড. শৈলেশকুমার যাদব।

ইতিমধ্যেই ত্রিপুরা মেডিক্যাল কলেজের সমস্ত চিকিৎসক, নার্স  ও স্বাস্থ্যকর্মীদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

তবে ত্রিপুরার ঘটনা মানুষের মধ্যে নতুন করে আতঙ্ক তৈরি করল।

 

 

 

 

 

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only