শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

ধর্মীয় মিছিল যেন হিংসার কারণ না হয়: মাদ্রাজ হাইকোর্ট

নয়াদিল্লি: সমস্ত ধর্মীয় মিছিলে সৌহার্দ্য এবং ভ্রাতৃত্ববোধের বার্তা দেওয়া উচিত ধর্মীয় মিছিল যেন কোনও সাম্প্রদায়িক হিংসার কারণ না হয় এই মন্তব্য করেছে, মাদ্রাজ হাইকোর্টের মাদুরাই বেঞ্চ তামিলনাড়ুর দিন্দিগুল জেলায় একটি ধর্মীয় মিছিল বের করার অনুমতি দিতে গিয়ে একক বেঞ্চের বিচারপতি আর হেমলতা জোর দিয়েছেন সাম্প্রদায়িক সৌহার্দ্যরে উপর জনৈক এম থাঙ্গারাজ দিন্দিগুল জেলায় আরুল মিগু পদ্মগিরিশ্বরা এবং অরুলমিগু অবিরামি অম্বিগাই মন্দিরের বাইরে গিরিভালম পার্বন উপলক্ষ্যে মিছিলে যোগদানের আবেদন জানান আদালতে 



আবেদনকারী দিন্দিগুল জেলার জেলা কালেক্টরের মন্দিরের বাইরে পাঁচজনের বেশি জমায়েতের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন হাইকোর্টে দিন্দিগুল শহরের পুলিশ ইন্সপেক্টর আদালতকে জানিয়েছিলেন যে, গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুযায়ী এই মিছিলে যোগ দেবে কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন হিন্দু মুন্নানি এবং হিন্দু মাক্কাল কাছি পুলিশ ইন্সপেক্টরের রিপোর্টে আরও বলা হয়েছিল মিছিলে যোগদানকারীরা ব্যানার প্ল্যাকার্ড এবং মাইক নিয়ে বেরবেন ড্রাম বাজিয়ে স্লোগানও দেওয়া হবে এতে আপত্তি জানিয়েছেন এলাকার মুসলিমরা মুসলিমদের দাবি রকফোর্ট তাদের ধর্মীয় স্থল সেখানে তাঁরা নামায পড়ে থাকেন কিন্তু হিন্দু সংগঠনগুলি সেখানে পাহাড়ের উপরে উঠে প্রদীপ জ্বালাতে চায় বিচারপতি হেমলতা পুলিশ রিপোর্টের প্রেক্ষিতে মন্তব্য করেন গত দশ বছর ধরে গিরিভালাম পার্বন উপলক্ষে মিছিলের আয়োজন করা হয় তবে মিছিল থেকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা যেন ছড়িয়ে দেওয়া হয় কোনও সাম্প্রদায়িক হিংসার যেন কারণ না হয় এই ধর্মীয় মিছিল এটা সমস্ত ধর্মের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য বিচারপতি বলেন আদালত আশা করে প্রত্যেকেই যেন বিবিধের মধ্যে ঐক্যে এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রচার করেন ধর্মীয় মিছিলে আদালত নির্দেশ দেয় করোনাবিধি মেনে শান্তিপূর্ণ মিছিল করতে হবে কোনও উসকানিমূলক স্লোগান মিছিলে দেওয়া চলবে না


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only