বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১

‘নবরত্ন’ শিপিং কর্পোরেশন বিক্রির পরিকল্পনা কেন্দ্রের

নয়াদিল্লি:  যে সংস্থা বছরে ৩০০ কোটি টাকা মুনাফা দেয় কেন্দ্রীয় সরকারকে, ২০২০ সালে যে সংস্থার রাজস্বের পরিমাণ ছিল ৪৪২৫.৪৪ কোটি টাকা, সেই লাভজনক শিপিং কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়াকে বিক্রি করে দিচ্ছে মোদি সরকার। ইতিমধ্যেই অনিল অগ্রবালের বেদান্ত গ্রুপ শিপিং কর্পোরেশন কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বেদান্ত গ্রুপ ওই সংস্থার ৬৩.৭৫ শতাংশ শেয়ার কিনে নিচ্ছে বলে সূত্রের খবর। মনে রাখা দরকারশিপিং কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া সরকারেরনবরত্নসংস্থার মধ্যে অন্যতম। সরকারের হাতে থাকা ৯টি লাভজনক সংস্থাকেনবরb’ বলে অভিহিত করা হয়। শিপিং কর্পোরেশন বন্দর মন্ত্রকের আওতায় রয়েছে। ৮০টি জাহাজ রয়েছে এই কর্পোরেশনের আওতায়। সংস্থার ইউনিয়নের মুখপাত্র মনোজ যাদব বলছেন, এটি বেসরকারি হাতে গেলে হাজার দশেক লোকের চাকরি যাবে। শিপিং কর্পোরেশন ২০২১ সালের প্রথমার্ধে ৩০০ কোটি টাকা লাভ করেছে এবং সংস্থার অপারেশান মূল্য ৯১৮ কোটি টাকা থেকে বেড়ে ১১৪৩ কোটি টাকা হয়েছে। ২০১৯ সালের নভেম্বরেই মোদি সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে শিপিং কর্পোরেশনকে বিক্রি করে দেওয়া হবে।



দিকে রাষ্ট্রয়াত্ত ব্যাঙ্কগুলির ফের লক্ষ ১৫ হাজার কোটি টাকার বকেয়া কুঋণ মুছে ফেলা হল ব্যাঙ্কগুলির হিসেব বই থেকে। কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর সংসদে এই কথা বলেছেন। শিল্পপতিরা যে ঋণ নিয়ে শোধ করেননি সেই ঋণের টাকা জমতে জমতে কুঋণে পরিণত হয়। একটা সময়ে ব্যাঙ্কের হিসেবের খাতা থেকে এই অঙ্ক মুছে ফেলা হয়। এভাবেই লক্ষ ১৫ হাজার কোটি টাকা সদ্য মুছে ফেলল কেন্দ্র। অবশ্য মন্ত্রী বলেছেন, যারা ঋণ নিয়ে ফেরত দেননি তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযান জারি থাকবে। আসলে কিন্তু তা হয় না। মাঝখান থেকে শিল্পপতিরাই বেঁচে যান। এর আগে লক্ষ ৩৬ হাজার ২৬৫ কোটি টাকা, লক্ষ ৩৪ হাজার ১৭০ কোটি টাকা এবং লক্ষ ১৫ হাজার ৩৮ কোটি টাকা ২০১৮-১৯২০১৯-২০ এবং ২০২০-২১ অর্থবর্ষে একইভাবে রাষ্ট্রায়াত্ত ব্যাঙ্কের হিসেব বই থেকে মুছে ফেলা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only