মঙ্গলবার, ৩০ মার্চ, ২০২১

‘ওরা' চান কাজের মানুষ বললেন নব্য ভোটাররা

সেখ কুতুবউদ্দিন

প্রথম দফার ভোট সম্পন্ন হয়েছে বাকি ভোটের প্রস্তুতিও তুঙ্গে ভোটপর্ব শান্তিতে মিটবে কিনা, এই নিয়ে অনেকের চোখে মুখে উদ্বেগ থাকলেওওদেরমুখে নেই কোনও দুশ্চিন্তা এখানে ওখানে বড়দের সঙ্গে নব্য ভোটাররাও রাস্তার ধারে, চায়ের দোকানে ভোটের পর্যালোচনা সারছেন। ভোটের প্রার্থীদের নয়, রাজ্য বা কেন্দ্র সরকারের কাজেও তুলনা করছেন আগুন ঝড়া গরমে ঘেমে-নেয়ে একাকার হলেও ওদের চোখে-মুখে নেই কোনও বিরক্তি বা ক্লান্তির চিহ্ন দুঃসহ গরমের মধ্যে ভোটের দেওয়াল লিখন, পোস্টার মারা অথবা অন্যান্য প্রচারেও অংশ নিচ্ছেন ওরা ওরা জীবনে এই প্রথম এক নতুন অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে এসেছেন বিধানসভা নির্বাচনের সদ্য তথা নব্য ভোটাররা জীবনে প্রথমবার নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার অর্থাৎ ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন

সোমবার পার্ক সার্কাস, তপসিয়া প্রভৃতি এলাকার সদ্য আঠারো উর্দ্ধ মুহাম্মদ রেজাউল মোস্তফা, মুহাম্মদ সাজেব, মনিকা দাসদের সকলের কথা, যে কাজ করবে তাকেই ভোট সম্প্রীতি ঐক্য যে বা যারা বজায় রাখবে তাদেরই ভোট 

তাঁদের মধ্যে পার্ক সার্কাসের মডার্ণ স্কুলে রেজাউল মোস্তফা খুশিতে আপ্লুত হয়ে জানালেন, এই প্রথম ভোট দেব। এতে খুব ভালো লাগছে কীভাবে ভোট দিতে হয় তারডেমো' দেখলে এবার সেও ইভিএম মেশিনে বোতাম টিপবে এই ভেবেই তার খুব আনন্দ প্রথম ভোট দেওয়া নিয়ে মনিকা দাস, মুহাম্মদ সাজেব বলেন, ভোট দিতে যাব এটা গণতান্ত্রিক অধিকার দীপায়ন দত্ত বলেন, দেশের সাধারণ মানুষের জন্য যারা কিছু করবে, তাদেরকেই ভোট দেব সৎ ভাবে প্রকৃতপক্ষে সাধারণ মানুষের স্বার্থে কাজ করতে পারবে এমনই মানুষকেই মু্খ্যমন্ত্রীর পদে দেখতে চাই কীম্বার স্ট্রীটের আয়ান খান বলেন, দেশ এখন ক্রাইসিসের মধ্যে যাচ্ছে সাধারণ মানুষরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন এই হয়রানি থেকে দেশের মানুষকে যারা বাঁচাতে পারবে তাদেরই ভোট দেওয়া প্রয়োজন

রেজাউল আরও জানায়, দেশের মধ্যে অস্থিরতা তৈরি হচ্ছে সংখ্যালঘুদের মধ্যে আক্রমণ হচ্ছে প্রতিবেশী দেশগুলির সঙ্গে সু সম্পর্ক নষ্ট হচ্ছে দেশের মানুষকে ভালো রাখতে যারা ভাববে, তাদেরই ভোট দেওয়া উচিৎ দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়া সাজেব বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নের নামে বিভিন্নভাবে অরাজকতা হচ্ছে বাধা-বিপত্তি তৈরি হচ্ছে পড়ুয়াদের উন্নয়নে কেন্দ্রীয় রাজ্য সরকারকেই নজর দিতে হবে আমরা ছোট বেলায় দেখেছি ভোট এলে বাড়িতে এসে সব দলের নেতারা জোর হাত করে ভোট দেওয়ার জন্য আবেদন করতেন কিন্তু যে প্রতিশ্রুতি দেন, তা অনেক সময় থেকেই যায় বর্তমানে যুব সমাজ এখন অনেক সচেতন যারা কাজ করবে, মানুষের কথা ভাববে তাদেরই ভোট দেব বলে জীবনের প্রথম বার ভোট দিতে এসে জানালেন যুবকরা

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only