বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১

ছন্দপতন, পায়ে চোট পেয়ে কলকাতায় ফিরছেন মমতা, চক্রান্তের অভিযোগ

নন্দীগ্রাম: মনোনয়ন পেশের দিনই ছন্দপতন। হঠাৎ করে পায়ে চোট পেয়ে কলকাতায় ফিরছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 


আজ নন্দীগ্রামে থাকার কথা ছিল তাঁর।জানা গেছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোট অতি গুরুতর। কয়েকজম মিলে তাকে ধরাধরি করে গাড়িতে তোলেন। তাঁর বাঁ পায়ে চোট লেগেছে।  ্প্রথমে গাড়ির সামনের সিটে বসলে্ও পরে তাকে গাড়ির পিছনের সিটে নিয়ে আসা হয়। 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, বিরুলিয়া মন্দিরে পুজো দিয়ে নামার সময় তিনি কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলছিলেন। সে্ই সময় কেউ বা কারা ইচ্ছাকৃতভাবে তাঁকে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়েছে। সেই সময় তার আশেপাশে পুলিশকর্মী ছিল না।  গাড়িতে ওঠার সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, তার শরীরের অন্যান্য অংশে চোট লেগেছে। পা ফুলে গেছে। সেই সঙ্গে যন্ত্রণা শুরু হয়েছে। স্থানীয় পুলিশ, এসপি ছিল না। মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বুধবার সকালে মন্দিরে পুজো দিয়ে হলদিয়া মহকুমা শাসকের দফতরে মনোনয়ন পত্র জমা দেন তিনি। এদিন রোড–শো করার পরে মনোনয়ন জমা দেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন সুব্রত বক্সী। এদিন তাঁর মনোনয়ন জমা দেওয়াকে ঘিরে ছিল মানুষের উচ্ছ্বাস।

আজ নন্দীগ্রামেই রাত্রিযাপন করার কথা ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বৃহস্পতিবার কলকাতার ফেরার কথা ছিল তার। তার আগেই এই দুর্ঘটনা ঘটায় তড়িঘড়ি কলকাতা ফেরার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। 

বুধবারও তার একাধিক কর্মসূচি ছিল। সকাল থেকেই আজ ঠাসা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিন শুরু করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।সকালে পুজো মন্দিরে পুজো দেওয়ার পর পদযাত্রা করে হলদিয়া মহকুমা শাসকের দফতরে এসে মনোনয়ন জমা দেন। মনোনয়ন শেষে তিনি সাধারণের উদ্দেশ্যে বলেন, 'নিজের নাম ভুললে্ও নন্দীগ্রামের নাম তিনি কোনওদিন ভুলবেন না'। এরপরে তিনি বিরুলিয়ার এক ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানে পা'য়ে চোট পান মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ে ইতিমধ্যেই রওনা হয়েছে কলকাতার উদ্দেশ্যে। গ্রিন করিডর দিয়ে আসছে মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়। তাকে এসএসকেএম–এ ভর্তি করা হবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য অপেক্ষায় চিকিৎসকেরা।

ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে মুখ্যমন্ত্রী জেড প্লাস ক্যাটাগোরির নিরাপত্তা পেয়ে থাকেন। তারপরেও এই ধরনের গাফিলতির ঘটনা কিভাবে ঘটল। রাজ্যের একজন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে যদি এই ধরনের ঘটে তাহলে একজন সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রশ্নচিহ্নের মুখে।

এদিকে এই  ঘটনা ঘিরে তীব্র চাপান–উতোর শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only