মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১

পবিত্র কুরআনের আয়াত বাদ দেওয়ার আর্জি খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট, রিজভিকে ৫০ হাজার টাকার জরিমানাও

পুবের কলম, নয়াদিল্লি: 


পবিত্র কুরআনের ২৬টি আয়াত বাদ দেওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন দাখিল করেছিলেন উত্তরপ্রদেশের শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ওয়াসিম রিজভি এই আর্জি সোমবার খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি রোহিংটন নরিম্যানের নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির এক বেঞ্চ শুধু আর্জি খারিজ করেই দেয়নি আদালত, এই ধরনের অসার মূর্খতাপূর্ণ আবেদন দাখিলের দায়ে রিজভিকে ৫০ হাজার টাকার জরিমানাও করেছে সুপ্রিম কোর্ট

রিজভি তার আবেদনে লিখেছিলেন, পবিত্র কুরআনের ২৬টি আয়াত আদি এবং মূল কুরআনের অংশ নয় পরে কুরআনে এই আয়াতগুলি ঢোকানো হয়েছে রিজভি কিন্তু তাঁর এই বক্তব্যের জন্য কোনও ঐতিহাসিক কিংবা ধর্মীয় প্রমাণ দিতে পারেননি রিজভি তাঁর আর্জিতে আরও ভুলভাল বিদ্বেষমূলক অনেক কথা বকেছেন তিনি দাবি করেন, প্রথম, দ্বিতীয় তৃতীয় খালিফা যথাক্রমে হযরত আবুবকর সিদ্দিক (রা.)– হযরত ওমর (রা.) এবং হযরত উসমান গনির (রা) খিলাফতকালে কুরআন-এর বিভিন্ন আয়াতকে সুসংবদ্ধ করে লিখিত পুস্তকের আকার দেওয়া হয় নবী কারিমের (সা.) ওফাতের পর তাঁর মুখ থেকে শোনা যা তাঁর সাথী সাহাবারা (রা.) লিখে নিয়েছিলেন কিংবা কণ্ঠস্থ করে নিয়েছিলেন কুরআনের সেই আয়াতগুলি জড়ো করে সাহাবা-বিশেষজ্ঞদের মত নিয়ে এবং খলিফার উপস্থিতিতে পুস্তকের আকার দেওয়া হয় রিজভির দাবি তখনই নাকি উল্লিখিত ২৬টি আয়াত পবিত্র কুরআনে প্রক্ষিপ্ত করা হয় কিন্তু ওয়াসিম রিজভি সমস্ত তথ্য ইতিহাস না জেনেই এই ধরনের কিছু পশ্চিমা ওরিয়েন্টালিস্টের মনগড়া বিকৃত তথ্যের পুনরাবৃত্তি করেছেন

নবী (সা.)- জীবদ্দশায় সম্পূর্ণ কুরআন নাজিল হয়েছিল নবী (সা.) উম্মি ছিলেন অর্থাৎ তিনি লেখাপড়া জানতেন না তাই তিনি সাহাবাদের বলেছিলেন, তাঁর মুখে শোনা কুরআন-এর সূরা কিংবা আয়াতগুলি যেন তাঁরা মুখস্থ করে নেন যাঁরা লিখতে পারেন তাঁরা লিখে নেন আর এভাবে তখন এবং পরে সৃষ্টি হয়ে চলেছে কুরআন মুখস্থ করা লক্ষ লক্ষ হাফিজ-এর ৬৫ জন সাহাবা বা নবীর (সা.) সঙ্গী মুহাম্মদ (সা.)-এর মুখে শুনে কুরআন-এর আয়াত সূরা লিখে নিতেন এবং মুখস্থ করতেন কাজেই হযরত উসমান (রা.) পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে যাচাই করে এবং তাঁর তত্ত্বাবধানে কুরআনকে লিখিত * দেওয়া হয় কাজেই এখানে একটিও আয়াত প্রক্ষিপ্ত করার কোনও সুযোগই ছিল না কিন্তু ইসলাম, কুরআন মুসলিম ইতিহাস সম্পর্কে অজ্ঞ ওয়াসিম রিজভি জানতেন না কিংবা ইচ্ছে করেই মিথ্যা বিতর্ক তৈরির চেষ্টা করেছেন উল্লেখযোগ্য হচ্ছে,  রিজভি শিয়া সম্প্রদায়ভুক্ত হলেও তাঁকে শিয়া আলেমরাই ধর্ম-বিরোধী বলে ঘোষণা করেছেন রিজভি সবসময়ই বিতর্ক তৈরির চেষ্টায় থাকেন এবং বিজেপি সংঘ পরিবারের তিনি এক বড় সমর্থক যোগী সরকার তাঁকে ব্যাপক সিকু্যইরিটি প্রদান করেছে

 

সোমবার সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির বেঞ্চ ওয়াসিম রিজভির উকিলকে প্রশ্ন করেছেন আপনি এই আবেদন নিয়ে প্রকৃতই কিসিরিয়াস? রিজভির মতে, এই আয়াতগুলি নাকি মৌলবাদ সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহিত করে তাঁর আর্জিতে আরও বলা হয়েছিল, মাদ্রাসায় বদ্ধ করে ছোট ছোট ছেলেদের এই আয়াতগুলি পড়ানো হয় যার ফলে সন্ত্রাসবাদ নাকি ফুলেফেঁপে উঠছে রিজভির আইনজীবী বিচারপতিদের কাছে মিনিট সময় চান

তাঁর বক্তব্য শোনার পর বিচারপতি নরিম্যান রিজভির এই আর্জিকে অসার, নিরর্থক এবং তুচ্ছ বলে খারিজ করে দিয়েছেন সেইসঙ্গে এই ধরনের আবেদন দায়ের করে সুপ্রিম কোর্টের সময় নষ্ট করার জন্য রিজভিকে ৫০ হাজার টাকার জরিমানাও করেছেন

রিজভি যখন এই আবেদন দাখিল করেছিল, তখন এর নিন্দা করে অল ইন্ডিয়া শিয়া পার্সনাল বোর্ড এবং অন্যান্য মুসলিম সংগঠন তাঁরা বলেছিল, এই আবেদন দুরভিসন্ধিমূলক কুরআনের আয়াতের প্রেক্ষাপট উল্লেখ না করে বিচ্ছিন্ন উদ্ধৃতি দেওয়া হচ্ছে সমাজে অনৈক্য এবং বিভেদ ছড়ানোর জন্য অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সনাল বোর্ড-এর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মেহমুদ দরিয়াবাদী বলেন, কুরআনের কোনও আয়াত হিংসায় উসকানি দেয় না ন্যাশনাল কমিশন অফ মাইনরিটিজের তরফেও নোটিশ জারি করা হয়েছিল রিজভিকে তাতে বলা হয়েছিল, রিজভি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কেন নষ্ট করতে চাইছেন, তার জবাবদিহি করতে হবে সুপ্রিম কোর্টও এই অপচেষ্টামূলক আবেদনকে খারিজ করে দিয়ে রিজভিকে জরিমানা করেছে

 

 

 

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only