সোমবার, ৫ এপ্রিল, ২০২১

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ, ঘরে ফিরছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা

পুবের কলম, নাসিক: 


দেশে এক লাখ ছাড়িয়েছে দৈনিক সংক্রমণ মহারাষ্ট্রে গড়ে ৫৫ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন গত কয়েকদিনে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল দেশ এই পরিস্থিতিতে মহারাষ্ট্র সরকার করোনা রুখতে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে রবিবার দিনের বেলা জনের বেশি মানুষ জমায়েত হতে পারবে না এমন নির্দেশিকা জারি হয়েছে পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহান্তে শুক্রবার রাত ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত সম্পূর্ণ লকডাউন চলবে রাজ্যটিতে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে জানিয়েছেন, আপাতত সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করার কোনও চিন্তাভাবনা নেই মুম্বইসহ শহরগুলিতে জারি হয়েছে রাত্রিকালীন কারফিউ গত বছরের ভয়াবহ স্মৃতি মনে রেখে মহারাষ্ট্রে আংশিক লকডাউনের কারণে ঘরে ফিরতে শুরু করেছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা এর আগে গত বছর যখন লকডাউন শুরু হয় আচমকা তখন অসুবিধায় পড়েছিলেন ভিন রাজ্য থেকে কাজ করতে যাওয়া শ্রমিকরা দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে তাদের পায়ে হেঁটে বাড়ির ফেরার মর্মান্তিক দৃশ্য দেখেছিল দেশ তাই ফের মহারাষ্ট্রে লকডাউনের ঘোষণা হতেই বাড়ি ফেরার তোড়জোড় শুরু হয়েছে নাসিক থেকে ফিরছেন মধ্যপ্রদেশ, ইউপি, বিহার বাংলার শ্রমিকরা এই শ্রমিকদের বেশিরভাগই বিভিন্ন রেস্তোরাঁ, নির্মাণকাজ শিল্পের সঙ্গে জড়িত গ্রামে ফেরার প্রথম ট্রেন খুঁজছেন অনেকেই ফলে ট্রেনেও ভিড় হচ্ছে প্রচণ্ড

উত্তরপ্রদেশের কানপুর থেকে নাসিকের একটি রেস্তোরাঁতে কাজ করতে আসা রোশন কুমার সিং তার স্ত্রী শিশুকে নিয়ে বাড়ি ফেরার যাত্রা শুরু করেছেন আংশিক লকডাউন ঘোষণার পরপরই তার সঙ্গী আরও অনেকেই তার কথায় ফের যদি পূর্ণ লকডাউন হয়ে সীমান্ত বন্ধ হয়ে যায় তবে আমরা সমস্যায় পড়ব তাই নিজেদের গ্রামে ফিরে যাচ্ছি রোশনের রেস্তোরাঁর মালিক নিজেই তাকে বাড়ি ফেরার জন্য বলেছেন কারণ মহারাষ্ট্রে কোভিড পরিস্থিতি খুবই খারাপ অনুরাগ সিং নামের এক নির্মাণকর্মীও তার পরিবার নিয়ে বাড়ির পথে যাত্রা করেছেন এখানে থাকা-খাওয়া দুটোরই খরচ হচ্ছে বাড়ি গেলে অন্তত চাষ করে খেতে পারবে তারা, এমনটাই জানাচ্ছেন অনুরাগ বাংলার অমিত দাস এক রেস্তোরাঁয় কাজ করতেন তিনিও ফিরছেন আংশিক লকডাউনের খবর শুনে সবাই আশঙ্কা করছেন পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে একই পরিস্থিতি অন্য রাজ্যেও            

 

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only