বুধবার, ৭ এপ্রিল, ২০২১

প্রয়োজন আরও ভ্যাকসিন, কেন্দ্রের ধীরগতিতে সরবরাহের কারণে টিকাকরণে দেরি,­ মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে

পুবের কলম, মুম্বই  মহারাষ্টেÉ অতি দ্রুতগতিতে বেড়ে চলা করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় রাজ্যে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই বলে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে। বুধবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেনরাজ্যে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এদিকে সাধারণ মানুষকে দেওয়ার মতো পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই। শুধু তিনদিনের মধ্যে ১৪ লক্ষ মানুষকে ভ্যাকসিন দিয়েছে রাজ্য। কেন্দ্র সরকারের কাছে প্রতি সপ্তাহে আরও ৪০ লক্ষ ভ্যাকসিনের আবেদন জানানো হয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত ধীরগতিতে সরবরাহ করা হচ্ছে।



তোপে বলেনআমি বলছি নাকেন্দ্র ভ্যাকসিন সরবরাহ করছে নাকিন্তু সরবরাহের দেরির জন্য টিকাকরণের কাজ মন্থরগতিতে চলছে। টিকাকরণ সেন্টারগুলিতে ভ্যাকসিনের অভাবে মানুষকে ফিরে যেতে হচ্ছে।

তোপে আরও বলেনরাজ্যের অবস্থা বিবেচনা করে মহারাষ্টÉ সরকারের পক্ষ থেকে কেন্দ্র সরকারের কাছে ২০ থেকে ৪০ বছরের মানু¡কে টিকা দেওয়ারও দাবি জানানো হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ষুদ্ধকালীন তৎপরতায় রাজ্যের পাশাপাশি পুণেমুম্বই নাসিকে হাসপাতালে শয্যা বাড়ানোর কাজ চলছে। এখনও জানুয়ারি মাস পর্যন্ত ৮২ লক্ষ মানুষকে  ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন লক্ষ করে টিকা দেওয়ার কাজ চলেছে। শীঘ্রই আমরা পাঁচলক্ষ করে টিকা দিতে পারব বলে আশা রাখি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেনসংক্রমণের হার যেভাবে বেড়ে চলেছে তা নিয়ে চিন্তিত রাজ্য সরকার। ব্রাজিলমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সাউথ আফ্রিকাতে ইতিমধ্যেই ডবল মিউট্যান্ট স্ট্রেন দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যেই যাদের মধ্যে উপসর্গ দেখা দিয়েছেনমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এই স্ট্রেন দ্রুতহারে মানুষের শরীরে সংক্রামিত হচ্ছে।প্রয়োজন আরও ভ্যাকসিনকেন্দ্রের ধীরগতিতে সরবরাহের কারণে টিকাকরণে দেরি­ মহারাষ্টেÉ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

পুবের কলম, মুম্বই  মহারাষ্টেÉ অতি দ্রুতগতিতে বেড়ে চলা করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় রাজ্যে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই বলে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে। বুধবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেনরাজ্যে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এদিকে সাধারণ মানুষকে দেওয়ার মতো পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই। শুধু তিনদিনের মধ্যে ১৪ লক্ষ মানুষকে ভ্যাকসিন দিয়েছে রাজ্য। কেন্দ্র সরকারের কাছে প্রতি সপ্তাহে আরও ৪০ লক্ষ ভ্যাকসিনের আবেদন জানানো হয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত ধীরগতিতে সরবরাহ করা হচ্ছে।

তোপে বলেনআমি বলছি নাকেন্দ্র ভ্যাকসিন সরবরাহ করছে নাকিন্তু সরবরাহের দেরির জন্য টিকাকরণের কাজ মন্থরগতিতে চলছে। টিকাকরণ সেন্টারগুলিতে ভ্যাকসিনের অভাবে মানুষকে ফিরে যেতে হচ্ছে।

তোপে আরও বলেনরাজ্যের অবস্থা বিবেচনা করে মহারাষ্টÉ সরকারের পক্ষ থেকে কেন্দ্র সরকারের কাছে ২০ থেকে ৪০ বছরের মানু¡কে টিকা দেওয়ারও দাবি জানানো হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ষুদ্ধকালীন তৎপরতায় রাজ্যের পাশাপাশি পুণেমুম্বই নাসিকে হাসপাতালে শয্যা বাড়ানোর কাজ চলছে। এখনও জানুয়ারি মাস পর্যন্ত ৮২ লক্ষ মানুষকে  ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন লক্ষ করে টিকা দেওয়ার কাজ চলেছে। শীঘ্রই আমরা পাঁচলক্ষ করে টিকা দিতে পারব বলে আশা রাখি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেনসংক্রমণের হার যেভাবে বেড়ে চলেছে তা নিয়ে চিন্তিত রাজ্য সরকার। ব্রাজিলমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সাউথ আফ্রিকাতে ইতিমধ্যেই ডবল মিউট্যান্ট স্ট্রেন দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যেই যাদের মধ্যে উপসর্গ দেখা দিয়েছেনমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এই স্ট্রেন দ্রুতহারে মানুষের শরীরে সংক্রামিত হচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only