সোমবার, ৩১ মে, ২০২১

চলতি মাসে করোনায় আক্রান্ত ৮ হাজারের বেশি শিশু, তৃতীয় ঢেউ রুখতে আগাম সতর্কতা মহারাষ্ট্রে

 

 


 



পুবের কলম, ওয়েবডেস্ক: প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ের পরে এবার কি আসতে চলেছে তৃতীয় ঢেউ। আর এই আশঙ্কায় আতঙ্ক ক্রমশই বেড়ে চলছে। তৃতীয় তরঙ্গে শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি বলেই আগেই সতর্কতা করেছেন চিকিৎসকরা।

দেশে যখন করোনার সংক্রমণ নিম্নমুখী। তখনও মহারাষ্ট্রে লাগামছাড়া গতিতে বেড়ে গেছে সংক্রমণ। কড়া বিধিনিষেধ, লকডাউন করেও সংক্রমণের চেন আটকানো সম্ভব হয়নি।যত সময় এগোচ্ছে তত এই নিয়ে উদ্বেগ, আতঙ্কে পারদ চড়ছে মহারাষ্ট্র সরকারের। করোনা আসার সময় থেকেই এই মারণ ভাইরাস তার নিযে দাপট অব্যাহত রেখছে। তৃতীয় ঢেউ মোকাবিলায়, আগাম প্রস্তুতি হিসেবে বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চলেছে মহারাষ্ট্র সরকার

সরকারি সূত্রে খবর, চলতি মাসে মহারাষ্ট্রের আহমেদনগরে হাজারেরও বেশি বাচ্চাদের শরীরে করোনার জীবাণু ধরা পড়েছে যা  উদ্বেগজনক

আর এই অবস্থায় আগামী জুলাই-আগস্ট মাসে যদি দেশে করোনার থার্ড ওয়েভ ছড়িয়ে পড়ে তাহলে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাবে। তাই আগাম সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা হিসেবে করোনার তৃতীয় ঢেউ থেকে শিশুদের সুরক্ষিত রাখতে নেওয়া হচ্ছে বিশেষ ব্যবস্থা

এই বিষয়ে মহারাষ্ট্রের সাঙ্গলি শহরের কর্পোরেশন মেয়র অভিজিৎ ভোঁসলে জানিয়েছেন, করোনার তৃতীয় ঢেউ যদি বাচ্চাদের উপর কোনও রকম প্রভাব ফেলে তা রুখতে সাঙ্গলি শহরে একটি কোভিড ওয়ার্ড তৈরি করা হয়েছে যেখানে বর্তমানে পাঁচজন শিশু করোনা সংক্রমিত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে তিনি আরও জানান, করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে যদি কোনও বাচ্চা সংক্রামিত হয় তাহলে তারা যাতে বুঝতে না পারে যে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সেজন্য সাঙ্গলি শহরের কোভিড ওয়ার্ডকে বাচ্চাদের নার্সারি বা স্কুলের মতো করে তৈরি করা হচ্ছে যাতে তাদের কোনও সময় না মনে হয় তারা অন্য কোথাও রয়েছেকরোনায় বাড়বাড়ন্ত দেখে, মহারাষ্ট্রে লকডাউনের সময় সীমা আরও বাড়ানো হয়েছে আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানার কথা ঘোষণা করেছে ঠাকরে প্রশাসন।

 

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only