বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

ভরা কোটালের আগেই মিনাখাঁয় বিদ্যাধরী নদীর বাঁধ ভাঙলো, বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত

 


ইনামুল হক, বসিরহাটঃ মে মাসের ২৬ তারিখ ইয়াস পূর্ণিমার ভরা কোটালে বিপর্যস্ত হয়েছিল সুন্দরবন সেই ক্ষত শুকোবার আগেই ফের  প্লাবনের ভ্রুকুটি এলাকাবাসীর কাছে ১১ জুন তারিখেই আবার অমাবস্যার ভরা কোটাল কি করে নদীর প্রবল জলোচ্ছ্বাস আটকে নিজেদের জীবন সুরক্ষিত করবেন সেটাই দুশ্চিন্তার কারণ হাওয়া অফিস সূত্রে খবর এই গভীর নিম্নচাপকে সঙ্গী করে দক্ষিণবঙ্গে ১০ তারিখ থেকেই বর্ষাকালের অতিবর্ষণ শুরু হবে স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্কে রয়েছে সুন্দরবনবাসী  

১১ই জুন বর্ষার আগমন অমাবস্যার কোটালে নতুন করে ভয়ের সঞ্চার ঘটছে নদী তীরবর্তী মানুষ গুলির মধ্যে কিছু কিছু জায়গায় বাদ সংস্কার হলেও বেশিরভাগ জায়গাতেই কাঁচা বাঁধ গুলির অবস্থা শোচনীয় তাই এই নিম্নচাপের বর্ষণ কাটিয়ে সামনের কোটাল বর্ষার প্রচন্ড বৃষ্টিতে কি অবস্থার সম্মুখীন হতে হবে সেটা নিয়েই আতঙ্কিত সুন্দরবনবাসি   বুধবার দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ বিদ্যাধরী নদীর বাঁধ ভাঙলো ৫০ ফুট বসিরহাট মহকুমার সুন্দরবনের মিনাখাঁ ব্লকের ঘুঁসিঘাটায় বিদ্যাধরী নদীর প্রায় ৫০ ফুট নদী বাঁধ ভেঙে ঘুঁসিঘাটা, কুলটি, ঘোষপুর, বামনপুকুর   কুশাংগরা সহ একাধিক গ্রামে নদীর জল ঢুকতে শুরু করেছে আগামী ১১ জুন অমাবস্যার ভরা কোটালের দুদিন আগেই পুনরায় নদী বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ায় নতুন করে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের কপালে বিডিও সেচ দপ্তরের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বাঁধ মেরামতির কাজ শুরু করার পরিকল্পনা করছেন


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only