বৃহস্পতিবার, ৩ জুন, ২০২১

ইতিহাস ও ঐতিহ্য, মক্কায় আসার প্রাচীন পথ আজও স্মৃতিচিহ্ন নিয়ে দাঁড়িয়ে

 


পুবের কলম ওয়েবডেস্কঃআব্বাসীয় সাম্রাজ্য আমাদের সামনে বেশ কিছু বিশিষ্ট মানুষদের এনে দেয়যাঁরা  সাম্রাজ্যের কল্যাণে অনেক জনহিতকর কাজ করেছিলেন হজযাত্রীরা যাতে সুস্থ নিরাপদভাবে হজযাত্রা করতে পারেনতার দিকে বিশেষ নজর দেওয়া সহ বিভিন্ন সংস্কারমূলক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন আব্বাসীয় খলিফারা এসব সংস্কারের মধ্যে অন্যতম ছিল খলিফা হারুন আল রশিদের স্ত্রী জুবাইদার নামাঙ্কিত ট্রেলটি (পায়ে চলার পথ)– যা মক্কায় আসার প্রাচীন পথ হিসেবে আজও স্মৃতিচিহ্ন নিয়ে দাঁড়িয়ে জুবাইদা ছিলেন ধর্মপ্রাণ দানশীল এক মহিলা তিনি হজযাত্রীদের পানি কষ্ট নিবারণের জন্য সেই প্রাচীন সময়েও একটি দীর্ঘ খাল খনন করিয়েছিলেন যাজুবাইদা নহরনামে পরিচিত

 

মক্কা হযরত মুহাম্মদ (সা.)- জন্মভূমি ইসলামের ইতিহাসে গুরুত্বপূর্ণ একটি স্থান সেখানে যাওয়ার প্রাচীন পথগুলি আজও মানুষ মনে রেখেছে ইসলাম পরবর্তী সময়ে এখনকার মতো ঝাঁ চকচকে রাস্তা ছিল না মক্কায় যাওয়ার গিরিপথমরুভূমির দুর্গম পথমরুদ্যানসরাইখানা হয়ে কাফেলা বা ক্যারাভান পৌঁছাত মক্কায় ব্যবসার জন্য যেমন অনেকে যেতেনতেমনই হজের জন্যও সমাবেশ হত দূর দূরান্তের মানুষের বিখ্যাত জুবাইদা ট্রেলে একসময় হাজার হাজার হজযাত্রীর পদচারণা হত পবিত্র স্থানে ইরাক লেভান্ত অঞ্চল থেকে বহু মানুষ এখানে আসতেন তখন এটি কুফি হজ রুট হিসেবেও পরিচিত ইরাকের কুফা থেকে ৬০০ কিলোমিটারের বেশি এটি প্রসারিত

ইসলাম-পূর্ব যুগে প্রাচীন পথটি ছিল ব্যবসা-বাণিজ্যের সাধারণ রুট পরবর্তীতে এগুলো দিয়েই হজযাত্রীরা যেমন এসেছেন তেমনি ইসলাম ছড়িয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই ট্রেলটি মরুভূমির মধ্যে দিয়ে এগিয়ে পাঁচটি অঞ্চলের মধ্যে গেছে--- উত্তর দিকের সীমান্তহেইলআল-কাসিমমদিনামক্কা জুবাইদা ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ হজ বাণিজ্যিক রুট আব্বাসীয় (৭৫০ খ্রি.-১২৫৮ খ্রি.)  খিলাফতের আমলে এটা বাগদাদ এবং দুই পবিত্র মসজিদ অবশিষ্ট আরবের সঙ্গে একটি  সংযোগ তৈরি করেছিল এটির নামকরণ করা হয় জুবাইদা বিনতে জাফর-এর নামে তিনি ছিলেন আব্বাসীয় খলিফা হারুন আল রশিদের স্ত্রী

এই রুট তৈরিতে তিনি প্রচুর পরিমাণে সাহায্য করেছিলেন এতে রয়েছে সাতাশটি স্টেশন বা বিশ্রামস্থল ৫০ কিলোমিটার অন্তর সরাইখানাগুলি ছিল এছাড়াও কিছু গৌণ স্টপেজ ছিল পরবর্তীতে রুটের ধারে বাড়িঘর নির্মাণ হতে শুরু হয় এই রুটের ধারে পানীয় জল পাওয়া যেত যাতে হজযাত্রীদের কোনও অসুবিধা না হয় এরকম কিছু সরাইখানা যেখানে এই পানীয় জলের পুল ছিলযেমনঃ  আল দাফিরিআল আমিয়াআল থুলামিয়াআল জুমাইমিয়াউম আল আসাফিরহামাদআল আশর এই ঐতিহাসিক রুটটি ইউনেস্কোর ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইটের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে

তরজমাঃ গোলাম রাশিদ


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only