বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

উদ্ধত চিন, উইঘুর মহিলাদের বন্ধ্যা করে দিতে জরায়ুতে বিশেষ ওষুধ প্রয়োগ



বিশেষ প্রতিবেদন: শিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলমিদের বংশ বিনাশ করতে নানান অমানবিক নীতি তৈরি করেছে চিনের কমিউনিস্ট সরকার। উইঘুর মহিলাদের বন্ধ্যা করে দিতে তাদের জরায়ুতে বিশেষ ওষুধ প্রয়োগ করা হচ্ছে। গর্ভবতীদের পেট কেটে বাচ্চা বের করে নিয়ে তাদের হত্যা করা হচ্ছে। উইঘুরদের মধ্যে বিয়ের ক্ষেত্রেও বাধা দিচ্ছে প্রশাসন। এর ফলে উইঘুর জনসংখ্যা ক্রমাগত হ্রাস পেতে শুরু করছে। 

সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট প্রকাশ করছেনে জার্মান গবষেক আদ্রিয়ান জেঞ্জ। তিনি বলেছেন, উইঘুরদরে জন্ম নিয়ন্ত্রণ করার রাষ্ট্রীয় নীতির ফলে আগামী ২০ বছরে ২৬ থেকে ৪৫ লক্ষ উইঘুর শিশুর জন্ম রুখে দেবে চিন। বলাই যায় একপ্রকার গণহত্যার মাধ্যমইে চিন উইঘুরদরে নতুন প্রজন্মকে ধ্বংস করতে উদ্ধত হয়ছে। এর ফলে আগামী দুই দশকে উইঘুর জনসংখ্যা এক তৃতীয়াংশ র্পযন্ত কমে যেতে পারে। 

শিনজিয়াংয়ে জোরর্পূবক জন্ম নিয়ন্ত্রণের জন্য কিছু পশ্চিমা দেশে ইতিমধ্যেই চিনকে গণহত্যার দায়ে অভিযুক্ত করেছে। কিন্তু এই অভিযোগ অস্বীকার করে বেজিং বলছে জন্মহার কমার পিছনে অন্য কারণ রয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only