মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১

মর্মান্তিক! রাজস্থানের মরুভূমিতে পানীয় জল না পেয়ে মৃত্যু বালিকার

 



পুবের কলম, ওয়েবডেস্ক:  'আর পারছি না, বড় কষ্ট।' এটাই হয়তো ছিল ছোট্ট মেয়েটির শেষ কথা। পানীয় জল না পেয়ে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হল ৬ বছরের ছোট্ট মেয়ের। রাজস্থানের জালোর জেলার ঘটনা। প্রচণ্ড দাবদাহের মধ্যে মরুভূমিতে চলতে চলতে জল পিপাসা পায় ছোট্ট মেয়েটির। কিন্তু ধূ ধূ মরুভূমিতে তাকে জল দেওয়ার মতো কেউ ছিল না। এক সময় জলের তেষ্টায় ছটফট করতে করতে নেতিয়ে পড়ে সে।

লকডাউনে যানবাহন বন্ধ। তাই গন্তব্যে পৌঁছনোর জন্য এই মরুভূমির পথকেই শর্টকার্ট হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন ঠাকুমা। সঙ্গে নিয়েছিলেন ৬ বছরের ছোট্ট নাতনীকে। প্রচণ্ড রোদের মধ্যে ৪০ ডিগ্রি তাপমাত্রাকে মাথার ওপর নিয়ে সাত কিলোমিটার পথ পাড়ি দেয় দুজনেই। রোদের তেজ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়তে থাকে গরম। তেতে ওঠে মরুভূমি। একটা সময় জলের তৃষ্ণায় হাফিয়ে ওঠে ছোট্ট মেয়েটি। নাতনীর কষ্টে ঠাকুমা খানিক বিশ্রাম নেওয়ার জন্য বসেন। কিন্তু একটা সময় জলের চেষ্টায় ছটফট করতে করতেই প্রথমে নেতিয়ে পড়ে নাতনী। তার কিছুক্ষণ পরেই মৃত্যু হয় তার। এদিকে তার পাশেই জল না পেয়ে, প্রচণ্ড গরমে জ্ঞান হারান ঠাকুমা।

মর্মান্তিক এই ঘটনায় স্তম্ভিত সাধারণ মানুষ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রতাপ সিং খাচারিয়াস জানান,  ওই বৃদ্ধা হয়তো তাদের গন্তব্যে যাওয়ার রাস্তা গুলিয়ে ফেলেছিলেন। যার ফলে পথভ্রষ্ট হয়ে পড়েন। পথের দিশা না বুঝতে পেরে মরুভূমিতে পথ হারিয়ে ফেলেন।

রাজস্থানের অশোক গেহলটের সরকারে দিকে তোপ দেগে সরব হয়েছেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা গুলাব চান্দ কাটারিয়া। তিনি বলেন, একটি শিশু পানীয় জল না পেয়ে মারা গেল, আর সরকার চুপ করে বসে আছে। রাজ্যে কিভাবে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল তার জবাব দিতে হবে সরকারকে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only