বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

নুসরতকে নসিহত তসলিমা নাসরিনের

 





বিশেষ প্রতিবেদক: বিস্ফোরক একটি খবর কয়েকদিন ধরেই পত্র-পত্রিকা নিউজ পোর্টাল সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। আর তা হল, সাংসদ নুসরত জাহান গর্ভবতী হয়েছেন। সম্পর্কে দৈনিক পত্রিকায় খবর বেরনোর পরই টলিউড এবং নুসরতের সংসদীয় কেন্দ্র বসিরহাটে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। তাঁর ভোটদাতারা সবাই খুশি। তাদের সাংসদের সন্তান হবে। কিন্তু তারপরই জানা যায়, নুসরত জাহানের স্বামী নিখিল জৈন তাঁর স্ত্রীর গর্ভে থাকা অনাগত শিশুর পিতৃত্বের দায় নিতে সরাসরি অস্বীকার করেছেন।

নিখিল জৈন বলেন, ‘আমার সঙ্গে কমপক্ষে মাস নুসরতের যোগাযোগ নেই। আর তাই আমার স্ত্রীর সন্তানের জনক আমি নই।

তাই প্রশ্ন উঠেছে, নুসরত গর্ভধারণ করেছেন কথা যদি সত্যি হয় আর নিখিল জৈন যদি সেই অনাগত শিশুর পিতা নন বলে দাবি করে থাকেন তাহলে কার সন্তান গর্ভে ধারণ করেছেন নুসরত?

প্রকৃতই তিনি সন্তানসম্ভাবা কি না, কিংবা কে তাঁর গর্ভস্থ সন্তানের পিতা সে সম্পর্কে নুসরত কিন্তু স্পষ্ট করে মুখ খোলেননি। তবে টলিউড সাংবাদিকদের অনুমান, অভিনেতা যশ-এর সঙ্গে তাঁর খোলামেলা ঘনিষ্ঠ মেলামেশা একসঙ্গে থাকার পরিণতিতেই নুসরত গর্ভবতী হয়েছেন। তবে সম্পর্কে নুসরতের বয়ফ্রেন্ড যশ এখন পর্যন্ত মুখ খোলেনি। আর নুসরতের অনাগত সন্তানের পিতৃত্বের দায়ও বিজেপি নেতা গেরুয়া দলের সদস্য যশ দাশগুপ্ত স্বীকার করেননি।

বসিরহাটে নুসরতকে সমর্থনকারী বেশ কিছু ভোটদাতা বলেছেন, নুসরত মা হতে যাচ্ছেন জেনে আমরা খুবই আনন্দিত হয়েছিলাম। তবে এখন একটু অস্বস্তিতে রয়েছি। কারণ, জানা যাচ্ছে না স্বামী যদি না হন, তাহলে কে তাঁর সন্তানের পিতা?

বসিরহাটের হিন্দু-মুসলিম বহু ভোটদাতাই বলছেন, জানি সমাজ পাল্টে গেছে। তাই ব্যাভিচার বা জেনা এই সব নিয়ে সমাজের প্রগতিশীল অগ্রণী অংশ আর মাথা ঘামায় না। তবুও সাংসদ হিসেবে নুসরতের উচিত সম্পর্কে ধন্দে না রেখে আসল সত্যটি মুখে উচ্চারণ করা।

নিখিল জৈন বলেছেন, তিনি নুসরতের বিরুদ্ধে তালাক চেয়ে দেওয়ানি আদালতে মামলা করেছেন। এই মামলার শুনানি হবে জুলাই মাসে। নিখিল জৈন- সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁর জানা মতে, ১০ সেপ্টেম্বর নুসরতের সন্তান জন্ম দেওয়ার সম্ভাব্য তারিখ।

এদিকে সমগ্র ব্যাপারটিকে নিয়ে হঠাৎই আসরে নেমে পড়েছেন বাংলাদেশী লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তিনি নুসরত জাহানকে আগ বাড়িয়ে বেশ কিছু নসিহত করেছেন। অবশ্য এই ধরনের উপদেশ দেওয়ার পূর্ণ অধিকার দিল্লিতে বসবাসকারী তসলিমার রয়েছে। কারণ, তিনিও বহু পুরুষের সঙ্গে, বেশ কিছু স্বামীর সঙ্গে নানা ধরনের অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে জীবন কাটিয়েছেন। কাজেই তাঁর নসিহত বা উপদেশ অবশ্যই অভিজ্ঞতাপ্রসূত যা নুসরতের জন্য উপকারি হতে পারে।

তসলিম নাসরিন তাঁর ফেসবুক এক পোস্ট দিয়ে সম্পর্কে লিখেছেন, ‘নুসরত প্রেগনেন্ট। তাঁর স্বামী ব্যাপারে কিছু জানেন না। তবে যশ নামে এক অভিনেতার সঙ্গে নুসরত প্রেম করছেন। মানুষের অনুমান, সন্তানের পিতা নিখিল নয়যশ।অনেকে বলছেন, রক্ষা এই পোস্ট করতে গিয়ে তসলিমা নাসরিন ইসলাম বা মুসলমানদের বিরুদ্ধে পড়েননি। তবে তিনি অন্যের ব্যক্তিগত ব্যাপারে নাক গলিয়েছেন। নুসরতের স্বাধীনতা বা নারী-স্বাধীনতাকে মর্যাদা না দিয়ে তসলিমা অভিভাবকসুলভ উপদেশ বিতরণ করেছেন। নুসরত, যশ বা নিখিল জৈন-এর এইসব উপদেশের প্রয়োজন রয়েছে কি না তা নিয়ে মনে হয় তসলিমার খুব একটা মাথাব্যাথা নেই। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only