শুক্রবার, ১১ জুন, ২০২১

'এক দেশ এক রেশন কার্ড' প্রকল্প দ্রুত চালু করতে বাংলাকে নির্দেশ শীর্ষ আদালতের

 


 


পুবের কলম, ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রের 'এক দেশ, এক রেশন কার্ড' প্রকল্প চালু করতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে শুক্রবার নির্দেশ দিল শীর্ষ আদালত তারা কোনও 'অজুহাত' শুনতে চায় না সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, এক বা একাধিক সমস্যার কথা বলতে পারেন না এটি পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকরা বিপুল সমস্যায় পড়েছিল বিশেষত অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকরা সরকারের নানা প্রকল্পের কল্যাণমূলক সুবিধা যাতে তারা পেতে পারে সেই জন্য শীর্ষ আদালত সংশ্লিষ্ট মামলার রায়ে এমন কঠোর অবস্থান নিয়েছে এই প্রকল্পের আওতায়, সরকারের গণ বন্টন ব্যবস্থার সুবিধাভোগীরা বায়োমেট্রিক যাচাইয়ের মাধ্যমে ন্যায্যমূল্যের দোকান থেকে সকল রাজ্য কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে রেশন তুলতে পারবেন

যাইহোক, এই প্রকল্পের বিরোধিতা করেছে বেশ কয়েকটি রাজ্য, যেমন পশ্চিমবঙ্গ, তামিলনাড়ু, অসম, ওড়িশা ছত্তিশগড়

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন যে, ভর্তুকি দেওয়া খাদ্য যেমন চাল, ডাল পরিযায়ী শ্রমিক অংসগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকরা পাবেন এমনকি যদি তাঁদের রেশন কার্ড নাও থাকে চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত

এদিকে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়াল দিল্লি সরকারকে নিশানা করে বলেছেন, দরিদ্র পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বাধা সৃষ্টি না করতে দিল্লি সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে এবং এক জাতি এক রেশন কার্ড প্রকল্প প্রয়োগ করতে বলা হয়েছে আগে প্রবীণ বিজেপি নেতা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদ পরিযায়ী শ্রমিকদের রেশন পেতে সাহায্য করার কথা বলেছিলেন কেন্দ্র সরকার 'এক দেশ, এক রেশন কার্ড' প্রকল্প চালু করলেও দিল্লি তিনটি রাজ্যের একটি যে এই নীতি প্রয়োগ করেনি

 কয়েক লক্ষ নকল রেশন কার্ড ধরা পড়ার পর কেজরিওয়াল সরকার ২০১৮ সালে এই প্রকল্প চালু হওয়ার চার মাসের মধ্যে রেশন দোকানের -অথেনটিকেশন বন্ধ করে দিয়েছিল এই প্রক্রিয়া কেন শেষ করা হয়নি তার জন্য তাঁর কৈফিয়ত চাওয়া হয় এদিকে, এই রেশন প্রকল্পে দলিত আদবাসী সুবিধাভোগীদের কোনও তথ্য দিল্লি সরকারের কাছে নেই

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only